নিউজপোল ডেস্ক: কর্নাটকে প্রচারে‌ মোদীর কালো বাক্স, কানহাইয়ার প্রচারে মহিলা ব্রিগেড বা জনসভায় মমতার ‘‌বিষ্ণুমাতা’ আওড়ানো‌— লোকসভা ভোটে এসবের কোনওটার থেকে পিছিয়ে নেই তিনি। তিনি সেই হলদে শাড়ি পরা তন্বী। হাতে ইভিএম। যাঁর ছবি এখন সোশ্যাল সাইটে ভাইরাল। কেউ বলছেন মিস জয়পুর। কেউ বলছেন, তিনি যেই বুথে ভোট করাতে গেছিলেন, সেখানে নাকি ১০০ শতাংশ ভোটদান হয়েছে। এতদিনে জানা গেল তাঁর আসল পরিচয়।
এই পোলিং অফিসার লখনউ-এর সেচ বিভাগের কর্মী। নাম রিনা দ্বিবেদী। লখনউ-এরই নগ্রামের ১৭৩ নং বুথে কর্তব্যপালনের দায়িত্ব ছিল তাঁর। গত ৫ মে তারিখে ওই স্থানীয় সংবাদপত্রেরই এক চিত্র-সাংবাদিক তাঁর বুথে যাওয়ার ছবি তুলেছিলেন। ওই পত্রিকাতে প্রকাশ পাওযার পরই রিনা দ্বিবেদীর ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। হলুদ শিফন শাড়ির সঙ্গে মানানসই স্লিভলেস ব্লাউজ। হাইলাইট করা চুল হালকা হাওয়ায় উড়ছে। চোখে রোদচশমা। তীব্র রোদের মধ্যেও মুখে হাসি।
তাঁর সাজপোশাক দেখে কেউ কেউ ধরেই নেন, তিনি মুম্বইয়ের কোনও বুথের দায়িত্বে ছিলেন। আবার অনেকের দাবি তিনি জয়পুরের একটি বুথে কর্তব্যরত ছিলেন। তিনি জয়পুরেরই বাসিন্দা। নাম নলিনী সিং। তিনি নাকি অতীতে মিসেস জয়পুর খেতাব জিতেছিলেন। এমনকী, তাঁর বুথের ভিডিও নিয়ে তৈরি হয়েছে মিউজিক ভিডিও। মোদী, রাহুল, কেজরিওয়ালের পাশাপাশি আপাতত ফেসবুক, টুইটার, হোয়াটসঅ্যাপে রাজ করছেন তিনি।