নিউজপোল ডেস্ক: সাংবাদিকদের সঙ্গে বচসা বা ঝামেলায় জড়িয়ে পড়া কঙ্গনা রানাওয়াতের কাছে নতুন কিছু নয়। স্পষ্টবক্তা হিসেবে পরিচিত এই অভিনেত্রীর শেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘মণিকর্ণিকা’-র সাফল্যের পর থেকেই দেখা যাচ্ছে, অপছন্দের কিছু ঘটলেই সেটাকে একটা বিরাট ঘটনা বানিয়ে ফেলছেন তিনি। ৮ জুলাই আগামী ছবি ‘জাজমেন্টাল হ্যায় কয়্যা’-র সঙ্গীত মুক্তির অনুষ্ঠানে কঙ্গনা বচসায় জড়ান জাস্টিন রাও নামক এক সাংবাদিকের সঙ্গে। এর পরিপ্রেক্ষিতেই তাঁকে বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে এন্টারটেনমেন্ট জার্নালিস্টস গিল্ড অফ ইন্ডিয়া।

সাংবাদিকদের দাবি, কঙ্গনা এবং ছবির পরিচালক একতা কাপুরকে প্রকাশ্যে ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করতে হবে। গিল্ডের তরফে একতা কাপুরের কাছে পাঠানো চিঠিতে জানানো হয়েছে, তাঁরা ঐক্যবদ্ধভাবে কঙ্গনাকে বর্জন করছেন। পরবর্তীকালে সংবাদমাধ্যম তাঁর কিছু প্রচার করবে না, যতদিন না তিনি নিজের আচরণের জন্য দুঃখপ্রকাশ করছেন। তবে ওই ছবির অন্যান্য কোনও তারকার ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য নয়, সে কথাও চিঠিতে জানানো হয়েছে। এর পরে বুধবার প্রযোজক একতা কাপুর টুইটে দুঃখপ্রকাশ করেন। কিন্তু কঙ্গনার তরফ থেকে এখনও সেরকম কোনও বার্তা আসেনি। তাঁর বোন রঙ্গোলী চন্ডেলের টুইট অনুসারে, কঙ্গনা ক্ষমা চাইবেন না।

সাংবাদিক জাস্টিন রাও তাঁর ছবি ‘মণিকর্ণিকা’-র নেতিবাচক সমালোচনা করায় তাঁকে নিয়ে আপত্তি প্রকাশ করেন কঙ্গনা। প্রশ্ন করেন, এত খারাপ কথা তাঁর সম্বন্ধে এই সাংবাদিক লিখছেন কী করে? বিশেষ করে তাঁরা যখন ‘বন্ধু’ এবং এই উল্লিখিত সাংবাদিক তাঁর ভ্যানে বসে তিন ঘণ্টা ধরে আড্ডা মেরেছেন এবং লাঞ্চ করেছেন? জাস্টিন রাও অবশ্য লাঞ্চ এবং বন্ধুত্ব দুইই অস্বীকার করে জানান, তিনি শুধুমাত্র একবার কঙ্গনার সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন। কোনও ব্যক্তিগত সম্পর্ক নেই, তিনি শুধুই নিজের কাজ করছিলেন।