নিউজপোল ডেস্ক: কাছের কারও মৃত্যুসংবাদ অনেক সময়ই ছোটদের দেওয়া হয় না। স্পাইডার ম্যান/পিটার পার্কার ওরফে টম হল্যান্ডের ক্ষেত্রে ঠিক এই প্রথাই অবলম্বন করেছিলেন ‘অ্যাভেঞ্জার্স: এন্ডগেম’-এর পরিচালকদ্বয় রুসো ব্রাদার্স। ছবির শেষ দৃশ্য যে আদতে আয়রন ম্যান/টোনি স্টার্কের শেষকৃত্যের দৃশ্য, সেটা জানানোই হয়নি তাঁকে। উল্টে বলা হয়েছিল, এই দৃশ্যে হতে চলেছে বিয়ের শুটিং।

খবরে প্রকাশ, ছবির গল্পের বিষয়ে কোনওভাবেই নিজের মুখ বন্ধ রাখতে পারেন না টম। সহ অভিনেতা মার্ক রুফালো (হাল্ক/ব্রুস ব্যানার)-এর মতোই তাঁরও স্বভাব আগেভাগে কাহিনির গতিপথ প্রকাশ করে দেওয়া। এইজন্য তাঁকে ‘স্পয়লার কিং’ আখ্যাও দেওয়া হয়েছে। এমনকী, গোটা ছবির শুটিং-এর সময়ও তাঁকে নির্দিষ্ট কোনও চিত্রনাট্য দেওয়া হত না। দৃশ্যটির একটি ধারণা এবং তাঁর সংলাপটুকুই বলা হত।
অতএব শেষ দৃশ্যের শুটিং-এর সময় সেখানে রবার্ট ডাউনি জুনিয়র ছাড়া সবাইকে উপস্থিত দেখে তিনি প্রশ্ন করেন, রবার্ট কোথায়? তখন তাঁকে জানানো হয় যে এটা আসলে টোনি স্টার্কের অন্ত্যেষ্টির দৃশ্য, সুতরাং এখানে তাঁর উপস্থিতি সম্ভব নয়। পরিচালকদের হাতে রীতিমতো বোকা বনে যাওয়ার অভিজ্ঞতা টম নিজেই স্বীকার করছেন জনপ্রিয় টিভি শো ‘জিমি কেনেল লাইভ’-এ। স্বাভাবিকভাবেই, হাসির রোল উঠেছিল দর্শকদের মধ্যে।

তবে এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবরে, মার্ভেলের পরবর্তী কোনও ছবিতেই থাকছেন না রবার্ট ডাউনি জুনিয়র। তাঁর উল্লেখ থাকলেও সশরীরে আর দেখা যাবে না তাঁকে। ভক্তদের মধ্যে গুঞ্জন ছড়াচ্ছে, তাহলে কি ফের বড়পর্দায় ফিরছেন শার্লক হোম্‌স?