নিউজপোল ডেস্ক: সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকদের পদত্যাগ করার পালা অব্যাহত। গতকাল (বৃহস্পতিবার) সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ থেকে গণ ইস্তফার সূত্রপাত। তিন দফায় মোট ১৮ জন চিকিৎসক পদত্যাগ করেছিলেন। আজ আরজি কর মেডিক্যাল হাসপাতালে একযোগে ৮০ ডাক্তার ইস্তফা দেন। এরপর সমস্ত ঘটনার কেন্দ্রবিন্দু নীলরতন সরকার মেডিক্যাল হাসপাতালে একসঙ্গে বিভিন্ন বিভাগের ১০০ চিকিৎসক ইস্তফা দিতে চলেছেন। সোমবার রোগীমৃত্যু এবং তারপর জুনিয়র ডাক্তারদের নিগৃহীত হওয়ার ঘটনায় কর্মবিরতির ঘোষণা করেন এনআরএসের জুনিয়র ডাক্তাররা। কর্মক্ষেত্রে নিরাপত্তা চেয়ে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেন তাঁরা। ঘটনার পর দু’দিন কেটে গেলেও মুখ্যমন্ত্রী এই নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি। অবশেষে বৃহস্পতিবার এসএসকেএম হাসপাতালে এসে কড়া ভাষায় চিকিৎসকদের নিন্দা করেন তিনি।

পাশে দাঁড়ানো তো দূর, জুনিয়র ডাক্তারদের কার্যত হুমকি দিয়েছেন মমতা। তাঁর নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে কাজে না ফিরলে কড়া প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। জুনিয়র ডাক্তারদের হোস্টেল থেকে বের করে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছিলেন তিনি। এতেই আগুনে ঘি পড়ে। রাজ্যজুড়ে প্রায় সমস্ত হাসপাতালে পরিষেবাহপ্রায় স্তব্ধ হয়ে যায়। শুরু হয় গণ ইস্তফার পালা। গতকাল প্রথমে ১৮ জন, আজ শুক্রবার আরজি করে ৮০ এবং অবশেষে এনআরএসে একসঙ্গে ১০০ চিকিৎসক পদত্যাগ করলেন। পরিস্থিতি যে ক্রমশ জটিলতর হচ্ছে তা বলাই বাহুল্য। এখন মুখ্যমন্ত্রী কী পদক্ষেপ সেটাই দেখার।