নিউজপোল ডেস্ক: দাড়ির আমি, দাড়ির তুমি। দাড়ি দিয়ে যায় চেনা। অন্তত এমনটাই মনে করছেন তরুণ প্রজন্ম। ট্রেন্ড অনুসরণ করার তাগিদে বলিউড তারকারা চলে আসছেন হিট লিস্টে। অন্তত দাড়ির জন্য তারকাদের আদর্শও মানছেন অনেকে। কিন্তু ট্রেন্ড বাদ দিলে, আসলে কী, কী সুবিধা রয়েছে দাড়ি রাখলে? কী বলছেন গবেষকরা?

• মুখ ভর্তি দাড়ি থাকা মানে অনেকেই মনে করেন বিভিন্ন রকম ত্বকের সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া যায়। এমনকী, ক্যানসার রোগও প্রতিরোধ করে বলে দাড়ি রাখেন অনেকে।  একথা মিথ্যেও নয়। ইউনিভার্সিটি অফ কুইন্সল্যান্ডের গবেষকরা মনে করেন, ত্বকের সমস্যার এক-তৃতীয়াংশ রুখতে পারে আপনার দাড়ি।

• প্রতি মুহূর্তে আমাদের ব্যস্ততা। এই দৌড় ঝাঁপের জীবনের যদি আয়নার সামনে দাঁড়িয়েই হাজার হাজার ঘণ্টা দাড়ি কাটার পেছনে অপচয় করেন, তা হলে তো জীবনের অনেকটাই বৃথা। অন্তত নিউইয়র্ক টাইমস তো সেই কথাই বলছে।

• ইদানীং দাড়ি রাখার হিড়িক পড়েছে। চলতি স্টাইল অনুসরণের জন্যই বলা যায়। তবে বিজ্ঞানীরা বলছেন, দাড়ি রাখলে শুধু অন্যদের কাছেই আপনি ঈর্ষণীয় হয়ে উঠছেন, তা কিন্তু নয়। নিজের কাছেও হয়ে উঠছেন আকর্ষণীয়।

• মুখ ভর্তি দাড়ি দেখে বাইরে দিক থেকে রুক্ষ, কঠোর মনে হলেও তরতাজা থাকে দাড়ির গোড়া। ফলে বয়সের ছাপ পড়ে না বললেই চলে। বিজনেস ইনসাইডার-এর তথ্য অনুযায়ী, ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ও তেলের সঠিক ভারসাম্য বজায় থাকে দাড়ি রাখলে।

• মলাট দেখে বইয়ের বিচার করা উচিত নয়, একথা ধ্রুব সত্য হলেও, আমরা মানি ক’জন! বরং বাইরে থেকে দেখে অন্যের সম্পর্কে মুহূর্তেই আমাদের মনে ধারণা তৈরি হয়ে যায়। দাড়ি থাকলে আপনার ‘ইমেজ’-এও প্রভাব পড়ে বলেই জানাচ্ছে সাইকোলজি টুডে-র প্রতিবেদন।