নিউজপোল ডেস্ক:‌ একটা আস্ত কাতলা। মুড়ো থেকে ল্যাজা লাল মশলা মাখানো। গনগনে উনুনে ঢুকিয়ে সেই কাতলার তন্দুরি। ভাবতে পারছেন!‌ মুরগী, পাঁঠার পর এবার রুই, কাতলারও তন্দুরি। কলকাতার জাকারিয়া স্ট্রিটে। এখন এই খেয়েই রোজা ভাঙছেন কলকাতাবাসীরা।
মাটন, চিকেন এমনকী চিংড়ির কাবাব বা ফ্রাই নতুন নয়। এবার তাদের সঙ্গে একাসনে বসতে চলেছে বাঙালির একান্ত আপন রুই, কাতলা। এতকালের কাবাব–কুলীনদের থেকে কিন্তু কোনওভাবেই প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে নেই তারা। উনুনে সেঁকার পর স্বাদে বলে বলে দশ গোল দেবে মাংস, চিংড়িকে।
কীভাবে এই স্বাদ পেল তারা?‌ গোপন রেসিপি অবশ্য বলতে চাননি জাকারিয়া স্ট্রিটের রাঁধুনিরা। এটুকু বললেন, রুই, কাতলার চেনা স্বাদকে অচেনা করেছে কিছু সাবেকী মশলা। আঁশ ছাড়িয়ে, গা চিরে তাতে বুলিয়ে দেওয়া হয় সেই মশলা। তার পর লেবুর রস। উনুনের আঁচে যখন সেঁকা হয়, তখন এক স্বর্গীয় গন্ধ ছাড়ে। শুধু আস্ত কাতলার তন্দুরি নয়, ভাজাও মিলবে। সেই সঙ্গে রুই, কাতলার মাহি কাবাব, ফিশ আফগানি, ফ্রাই ঝিঙ্গা সবি মিলবে। বড় দলে গেলে একটা আস্ত কাতলার কাবাব নিয়ে বসে পড়ুন। জমে যাবে দিন।

ছবি ইন্টারনেট থেকে