নিউজপোল ডেস্ক: আরও চারটে বছরের অপেক্ষা। এবারও সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে ভারতকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন একের পর এক ছবি এবং ভিডিও ভাইরাল হয়ে চলেছে। বিষণ্ণ রোহিত, রেগে যাওয়া, কোহলি, হতাশ ধোনি, নানান ছবি ছড়িয়ে পড়ছে। তবে যে ছবিটা সবচেয়ে বেশি আবেগের জন্ম দিচ্ছে তা এক ফোটোগ্রাফারের। তিনি ভারত বনাম নিউজিল্যান্ড ম্যাচটি কভার করছিলেন। এক ব্যক্তি টুইটারে ধোনি ও সেই ফোটোগ্রাফারের চারটি ছবি শেয়ার করেছেন।

ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, ক্যামেরায় মাথা ঠেকিয়ে কাঁদছেন ওই ফোটোগ্রাফার। চোখের জল বেয়ে নামছে তাঁর গালে। এক ধোনি-ভক্ত ছবিগুলি শেয়ার করে লিখেছেন, ‘ধন্যবাদ এমএসডি। তুমি বিরাটের অধিনায়ক থেকে যাবে, রোহিতেরও অধিনায়ক থেকে যাবে। এবং যা-ই হোক না কেন, আমাদেরও অধিনায়ক থাকবে চিরকাল। আমরা আবার সুযোগ পাব, কিন্তু তখন মাহি মাহি মাহি, এই গর্জন শোনা যাবে না। ছবি সমস্ত কথা বলে দেয়।’

অনেকেই এই ছবি শেয়ার করতে শুরু করেন। কিন্তু জানা যায়, আদৌ ওই ফোটোগ্রাফার ধোনির আউট হওয়াতে কাঁদেননি। আসলে তিনি ওই ম্যাচের ফোটোগ্রাফারই নন। তিনি ইরাকি চিত্র সাংবাদিক। এশিয়া কাপের রাউন্ড অব ১৬ থেকে তাঁর দেশ ছিটকে যাওয়ায় চোখের জল আটকাতে পারেননি। প্রভাত শর্মা, যিনি ধোনির নামে এই ছবি টুইট করেছিলেন, তাঁকে এই তথ্য দিয়ে নকল করার জন্য নিন্দা করা হলেও তিনি বিচলিত হননি। পরিষ্কার জানিয়েছেন, তিনি জানেন চিত্রগ্রাহকের পরিচয়। আবেগের ক্ষেত্রে একইরকম তাই শেয়ার করেছেন।

এদিকে বিশ্বকাপে ধোনির শেষ ইনিংস নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ভারত। কেউ কেউ মাহির ইনিংসের প্রশংসা করলেও, মন্থর ব্যাটিংয়ের জন্য সমালোচনাও কম হয়নি। কিন্তু চির-প্রতিদ্বন্দ্বী দেশ পাকিস্তান থেকে এক ধোনি-ভক্ত শুধু প্রশংসাই করছেন তিনি টুইট করে লিখেছেন, ‘এটা ধোনির শেষ ম্যাচ ছিল। আমি এবং পাকিস্তানের অনেকের কাছেই কিপিং এবং ব্যাটিংয়ের অনুপ্রেরণা তিনি। ভারতীয়রা ওঁর সমালোচনা করছে, কিন্তু বিশ্বাস করুন, আর পাবেন না মাহিকে। বিশ্বক্রিকেটে ওঁ ব্র্যান্ড। পাকিস্তান থেকে ভালবাসা এবং শ্রদ্ধা।’ সত্যিই হয়তো আর মাঠে নামতে দেখব না সাত নম্বর জার্সিধারীকে।