নিউজপোল ডেস্ক: নিউজিল্যান্ডের কাছে ১৮ রানে হেরে বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ভারত। গোটা প্রতিযোগিতায় দুর্দান্ত পারফর্ম করা দলের টপ অর্ডার এদিন ব্যর্থ হয়েছিল। মিডল অর্ডারের দায়িত্ব নেওয়া উচিত ছিল কিন্তু দীনেশ কার্তিক, ঋষভ পন্থ এবং হার্দিক পান্ডিয়া হতাশ করেছেন। জাদেজা এবং ধোনি হাল না ধরলে স্কোর ১৫০ পেরত কি না সন্দেহ। ভারতের সফলতম অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এই বিশ্বকাপে প্রথম থেকেই সমালোচিত হচ্ছিলেন তাঁর মন্থর ব্যাটিংয়ের জন্য। ধোনির পরিবর্তে ঋষভ পন্থকে কেন খেলানো হচ্ছে না তা নিয়ে সরব হয়েছিলেন বিশেষজ্ঞদের একাংশও। ম্যাচ হারলেও শেষ ম্যাচে জাত চিনিয়ে গেলেন মাহি।

মার্টিন গাপ্টিলের থ্রোয়ে শুধু উইকেট তো ভাঙেনি, ভেঙেছে ১৩০ কোটির হৃদয়। অনেকেই মনে বলছেন, ধোনি টিকে থাকলে ম্যাচ বের করে দিতেন। একই ধারণা কিউয়ি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনেরও। এমএসডিকে নিয়ে তাঁর ব্যক্তব্যে শ্রদ্ধা এবং প্রশংসাই ধরা পড়ল। টুর্নামেন্ট জুড়ে সমালোচিত হওয়া ভারতীয় উইকেটকিপারকে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে উইলিয়ামসন প্রথমে বলেন, ‘ও (ধোনি) নিউজিল্যান্ডের হয়ে খেলতে পারবে না।’ সবাই যখন এই কথায় হতবাক তখন তিনি যোগ করেন, ‘ধোনি কি নাগরিকত্ব বদলাচ্ছে? সেরকম হলে ওর নির্বাচনের বিষয়টা বিবেচনা করব।’

‘ধোনি একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়। শুধু গতকাল আর আজ নয়, গোটা টুর্নামেন্ট জুড়েই ওর অবদান খুবই গুরুত্বপূর্ণ ছিল। জাদেজার সঙ্গে ওর পার্টনারশিপ খুবই মূল্যবান ছিল’, বললেন কেন। ধোনির রান আউটটাও যে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিয়েছে তাও একবাক্যে স্বীকার করলেন তিনি। বললেন, ‘রান আউটটা খুবই তাৎপর্যপূর্ণ। এরকম পরিস্থিতিতে বহুবার ম্যাচ জিতিয়েছে ধোনি, তা আমরা সবাই দেখেছি। যে কোনওভাবে ওকে আউট করতে চেয়েছিলাম, সেখানে ওই সময়ে রান আউট ম্যাচের একটা বড় মুহূর্ত।’