নিউজপোল ডেস্ক : সদ্য প্রেমে পড়েছেন? প্রেম পুরনো হলেই বা!‌ এই শীতকালটা কীভাবে
কাটাবেন, ভেবেছেন কিছু? কনকনে ঠান্ডায় একমাত্র সেই মানুষটাই উষ্ণতার স্পর্শ দিতে পারে আপনাকে। তাকে আরও কাছে পেতে একটু বুদ্ধি খাটিয়ে ফেলুন। আমরা না হয় একটু সাহায্য করেই দিলাম—
পার্ক, মাল্টিপ্লেক্স কিংবা ময়দান চত্বর তো অনেক ঘুরলেন। এই শীতে একটু নতুন কিছু ভাবুন! হাতে হাত রেখে হাঁটুন পুরনো কলকাতার অলিগলিতে। খুঁজে বের করুন কিছু নিখোঁজকে।তুমুল শীতে এক কাপ চা বা কফির সঙ্গে এক টুকরো কেক। আহা!‌ না পারলে ইন্টারনেট থেকে জেনে নিন রেসিপি। নামিদামি কেক ভুলে যান। নিজে হাতে বানিয়ে ফেলুন বাদাম–মোড়া কেক। তারপর নিজে হাতে পরিবেশন করুন আপনার কাছের মানুষটাকে।
মাল্টিপ্লেক্সে সিনেমা দেখার জন্য সারা বছর পড়ে আছে। শীতকালে একটু অন্যরকম পরিকল্পনা করুন। প্রিয় মানুষটার সঙ্গে সিনেমা দেখুন ঘরে বসেই। কফি মগ হাতে লেপমুড়ি দিয়ে একসাথে সিনেমা দেখার মজাই আলাদা। একমাত্র শীতকালই আপনাকে দিতে পারে এই মুহূর্ত।

প্রিয় মানুষটার সঙ্গে আড্ডাটাও হোক একটু অন্যরকম। দু’জনেরই বই পছন্দ?‌ আলোচনা করুন প্রিয় বই নিয়ে। এভাবেই একে অন্যকে আরও জানতে পারবেন।
সপ্তাহভর কাজের চাপ। একান্তে সময় কাটানোর জন্য একটুও অবসর পাচ্ছেন না? তাহলে উইকএন্ডে কাছাকাছি কোথাও বেরিয়ে পড়ুন। পিকনিকে যাওয়া সবারই প্রিয়। বাড়িতেই আয়োজন করুন পিকনিকের। সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে না জানিয়ে। অপ্রত্যাশিত পাওনা আপনার প্রিয় মানুষটাকে অন্যরকম আনন্দ দেবে।
এই শীতে ধুলো ঝেড়ে বের করুন আপনার বিয়ের অ্যালবাম। এটা ফেলে রাখার জিনিস নয়। হাজার মনখারাপ এক নিমেষেই দূর হতে পারে পুরনো অ্যালবাম হাতে থাকলে। বিয়ের সময়ের বিভিন্ন ছবি বা ভিডিও আপনাদের দু’জনকে নস্টালজিক করে তুলবে।
আপনারা দুজনেই কি টেকস্যাভি? গেম খেলতে পছন্দ করেন? দু’জনে একসাথে খেলতে পারেন কোনও অনলাইন গেম। কম্পিউটার বা মোবাইল গেম এমনিতেই মানসিক স্বস্তি দেয়। তার উপর দু’জন একসাথে খেলার মজাই আলাদা।
খুব শপিং করতে ভালোবাসেন আপনার প্রিয় মানুষটা? দিতে পারেন গিফ্‌ট ভাওচার। অথবা দু’জনে যেতে পারেন কোনও মলে। পছন্দ করে দিতে পারেন সঙ্গী বা সঙ্গিনীর শীতের পোশাক।
শীতকাল মানেই চুল, ত্বকের নানা সমস্যা। বাড়তি যত্ন নেওয়ার প্রয়োজন পড়ে এই সময়ে। নিজের যত্ন তো নেবেনই, পাশাপাশি প্রিয়জনের খেয়াল রাখাও আপনার কর্তব্য। উপহার দিতে পারেন স্পা–এর ভাওচার।
তাহলে আর দেরি কেন! এই শীত হয়ে উঠুক আপনার। চেষ্টা করুন নতুন কিছু। ভুলে যান বছরভরের থোর বড়ি খাড়া। স্মরণীয় করে তুলুন শীতের এই মুহূর্ত।