পূর্ব মেদিনীপুর জেলা তমলুক থানার কাকগেছিয়ায় ৪১ নম্বর জাতীয় সড়কে সকাল সাড়ে দশটায় ডিউটি করছিল তমলুক থানার সিভিক ভলেন্টিয়ার সনাতন পাল। মেচেদার দিক থেকে আসা একটি ট্রেলার বেপরোয়াভাবে রাস্তার এক দিক থেকে আরেক দিকে চলে যায়। সনাতন পালকে সজোরে ধাক্কা মারে। সনাতন পাল ছিটকে পড়ে রাস্তার ধারে। সঙ্গে সঙ্গে স্থানীয় বাসিন্দারা সিভিক ভলেন্টিয়ার কি তমলুক জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেখানেই চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। ট্রেলার টিকে আটক করে। ড্রাইভার পালানোর চেষ্টা করলে গ্রামবাসীরা ধরে ফেলে। মৃত সনাতন পাল কে দেখতে জেলা হাসপাতালে আসেন ডিএসপি ট্রাফিক প্রদীপ মন্ডল, তমলুক থানার আইসি সমিত ভট্টাচার্য। সিভিক ভলেন্টিয়ার সনাতন পালের বাড়ি তমলুক থানার চকগাড়ুপোতায়। সনাতন পাল এর স্ত্রী ও ছোট্ট এক কন্যা সন্তান বর্তমান। বেপরোয়াভাবে গাড়ি চালানোর ফলেই এই দুর্ঘটনা। ফলে জাতীয় সড়ক এবং রাজ্য সড়কে কর্তব্যরত সিভিক ভলেন্টিয়াররা আতঙ্কে রয়েছে।