নিউজপোল ডেস্ক : কৃষকবিলকে কেন্দ্র করে সমগ্র দেশ জুড়েই চলা প্রায় ২০ দিনের আন্দোলনের জেরে এবার বিপুল ক্ষতির সম্মুখীন হলো গোটা রাষ্ট্র। জানা গিয়েছে, দিল্লি সীমান্তে চলা এই বিক্ষাভ অবস্থানের জেরে প্রতিদিন ক্ষতি হচ্ছে গড়ে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি। তাই এবার এর বিরুদ্ধেই সরব হলো বণিক সংগঠন অ্যাসোচেম।

প্রসঙ্গত, ইতিমধ্যেই এই সমস্যার তাড়াতাড়ি সমাধানের জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এবং বিভিন্ন কৃষক সংগঠনগুলিকে চিঠি পাঠিয়েছে কেন্দ্র। চিঠিতে তারা সরাসরি জানিয়েছে, দিল্লি সীমানায় লাগাতার এই বিক্ষোভের জেরে কৃষি ক্ষেত্র তো বটেই পাশাপাশি বিপুল ক্ষতি হচ্ছে পশুপালনেও।শুধু তাই নয় বিভিন্ন সীমানা বন্ধ থাকার দরুণ জানজটের কারণে ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে পণ্য পরিবহনের খরচ।

সংবাদ সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, এই সমস্যার দরুণ উত্তর রেলেও দেখা গিয়েছে ক্রাইসিস। এই বিষয়ে উত্তর রেলের ম্যানেজার আশুতোষ গঞ্জাল জানিয়েছেন, “কৃষক বিক্ষোভের জেরে যাত্রীবাহী ও মালবাহী ট্রেনের সমস্যাজনিত কারণে রেলের ক্ষতি হয়েছে প্রায় আড়াই হাজার কোটি টাকা। ফলস্বরূপ অ্যাসোচেম তাদের চিঠিতে স্পষ্ট জানিয়েছে পাঞ্জাব, হিমাচল, হরিয়ানা ও দিল্লীতে যে সমস্ত ইন্ডাস্ট্রি রয়েছে ‘কৃষিবিল প্রত্যাহার’ আন্দোলনের জন্য লাভের পরিমাণ একেবারেই তলানিতে গিয়ে ঠেকেছে ।