সারাদিন আপনি যাই খান না কেনো কোন খাবার দিয়ে আপনি আপনার দিন শুরু করছেন তা আপনার বাকি দিনটা কেমন কাটবে।সকালের জলখাবারে আপনি ভারী খাবার খেতেই পারেন কিন্তু ঘুম থেকে উঠেই তা করবেন না।দিনের শুরুটা হালকা খাবার দিয়ে শুরু করুন ও তার এক ঘন্টা পর ভালো করে জলখাবার খান।এতে আপনার খাবার তাড়াতাড়ি হজম হবে এবং খাবারের ওপর খাবার খেয়ে শরীর খারাপও হবে না।কিন্তু কি দিয়ে তবে দিনের সূচনা করা যেতে পারে? চলুন তারই এক ঝলক দেখে নেওয়া যাক।

মধু
প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে উষ্ণ গরম জলে লেবুর রস ও মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।এতে দেহের অপ্রয়োজনীয় টক্সিন বেরিয়ে যাবে এবং এটি আমাদের বিপাক ক্রিয়ায় সাহায্য করে।এছাড়াও প্রচলিত আছে যে সকালে উঠে খালি পেটে লেবু মধুর জল খেলে দ্রুত ওজন কমে। তাই রোজ নিয়ম করে এই পানীয় খেতে পারেন।

কাঠবাদাম
বাদাম, ড্রাই ফ্রুটস এগুলো সবসময় শুকনো খাওয়ার থেকে জলে ভিজিয়ে খাওয়া উচিৎ। কারণ এগুলো জলে ভিজিয়ে রাখলে এর পুষ্টিগুণ অনেকটা বেড়ে যায়। এরকমই একটি খাবার হলো কাঠবাদাম।আপনার ইচ্ছা হলো সারাদিনে অল্প অল্প করে বাদাম খেতেই পারেন। কিন্তু আপনি প্রতিদিন সকালে উঠে খালি পেটে যদি আগের রাত থেকে জলে ভিজিয়ে কাঠ বাদাম খান তাহলে তা হৃদরোগ, ডায়াবেটিস প্রভৃতি বহু রোগের হাত থেকে আপনাকে রক্ষা করবে।কাঠবাদাম খেয়ে সকালে শরীরচর্চা করুন তাতে অনেক বেশি এনার্জি পাবেন ও উপকার মিলবে।

আমলকি
আমলকির মধ্যে আছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আর এটি আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। তবে প্রতিদিন সকালে উঠে খালি পেটে যদি আমলকি খান তাহলে আপনার ত্বক আর চুল তো ভালো থাকবেই তার সাথে আপনার হৃদযন্ত্র ও লিভারও ভালো থাকবে। অনেকে আমলকি সিদ্ধ করে ভাতে মেখে খান কিন্তু তাতে সব পুষ্টিগুণ নষ্ট হয়ে যায় তাই আমলকি সবসময় কাঁচা খাওয়া উচিৎ।

Image source-Google