নিউজপোল ডেস্কঃ শনিবার এফসি গোয়াকে হারিয়ে আইএসএলে জয়ের সরণিতে ফিরল চেন্নাইয়িন এফসি। প্রথমার্ধ ১-১ শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে রহিম আলির জয়সূচক গোলে ফতোরদা স্টেডিয়ামে এদিন দ্বিতীয় জয় তুলে নিল মারিনা মাচানরা। তবে ম্যাচটা আরও বড় ব্যবধানে জিততে পারত চেন্নাইয়িন। কিন্তু দুর্বল ফিনিশিংয়ের কারণে শেষ অবধি ২-১ ব্যবধানে জিতেই এদিন মাঠ ছাড়ল সিসাবা লাজলোর ছেলেরা। এদিন চেন্নাইয়িনের বিরুদ্ধে মাঝমাঠে ব্র্যান্ডন ফার্নান্দেজকে রেখেই দল সাজিয়েছিলেন গোয়া কোচ জুয়ান ফেরান্দো। এছাড়াও প্রথম একাদশে আরও দু’টি পরিবর্তন এদিন এনেছিলেন তিনি। অন্যদিকে দুই তারকা মিডফিল্ডার অনিরুদ্ধ থাপা এবং রাফায়েল ক্রিভেলারোকে শুরু থেকে একাদশে রেখে দল সাজিয়েছিলেন চেন্নাইয়িন কোচ।

এদিন প্রথমার্ধের চতুর্থ মিনিটেই থাপার ডানপ্রান্তিক ক্রস ধরে দলকে এগিয়ে দিতে পারতেন সিলভেস্টার। কিন্তু কর্নারের বিনিময়ে কোনও রকম সামাল দেন গোয়ার গোলকিপার। সেই কর্নার থেকেই গোল করেই দলকে এগিয়ে দেন চেন্নাইয়িনের তারকা মিডিও ক্রিভেলারো। তাঁর বাঁ-পায়ের বাঁক খাওয়ানো কর্নার সরাসরি প্রবেশ করে যায় জালে। কিন্তু মাত্র চার মিনিট সেই লিড ধরে রাখতে পেরেছিল দক্ষিণের দলটি। ৯ মিনিটে জেসুরাজের স্কোয়্যার পাস ধরে জর্জ ওর্তিজ গোল করে ম্যাচে সমতায় ফেরায় দলকে। প্রথমার্ধের বাকি সময়টা আধিপত্য ছিল চেন্নাইয়িনের দখলেই। কিন্তু ওপেন সিটার নষ্ট করে দলের ব্যবধান বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া করেন ক্রিভেলারো-ছাংতেরা।

বিরতির ঠিক পরেই ৫৩ মিনিটে একটি থ্রু-বল ধরে বক্সে বিপক্ষ ডিফেন্ডার দোনাচিকে বোকা বানিয়ে রহিম আলির জন্য বল সাজিয়ে দেন ক্রিভেলারো। ফাঁকা জালে বল রাখতে ভুল করেননি বঙ্গ স্ট্রাইকার। এরপরেও সুযোগ এসেছিল ছাংতের কাছে। ৭৮ মিনিটে রহিম আলির থ্রু ধরে গোলের সামনে পৌঁছে গিয়েও তা বাইরে মারেন মিজো ফুটবলার। এদিন এই মিজো ফুটবলারটি একাধিক সুযোগ পেয়েও তা কাজে লাগাতে পারেননি। অন্যদিকে জর্জ ওর্তিজ, ইগর আঙ্গুলোরা চেষ্টা করেও দলকে সমতায় ফেরাতে ব্যর্থ। ফলে একাধিক সুযোগ নষ্ট করেও ২-১ জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে চেন্নাইয়িন। এই জয়ের ফলে ছয় ম্যাচ থেকে ৮ পয়েন্ট সংগ্রহ করে লিগ টেবিলে অষ্টম স্থানে অবস্থান করছেন তাঁরা।