চতুর্থ দফা নির্বাচনে অশান্তি অব্যাহত, 793 কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী থাকা সত্ত্বেও সকাল থেকে শুরু হয়েছে অশান্তির ছোঁয়া। কোথাও প্রার্থী কে ঘিরে বিক্ষোভ, কোথাও সংবাদমাধ্যমের গাড়ি ভাঙচুর, কোথায় ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ। চিন্তার ভাঁজ নির্বাচন কমিশন এর কপালে প্রসঙ্গত বলা যায় ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তুললেন লকেট চ‍্যাটার্জী, তারপরে লকেট চ্যাটার্জির গাড়ি কে ঘিরে বিক্ষোভ, গাড়ি ভাঙচুর অপর দিকে বাবুল সুপ্রিয় কে ঘিরে বিক্ষোভ ভাঙ্গরে। নওশাদ সিদ্দিকী কে ঘিরে বিক্ষোভ পিঠানতুলিতে। গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত যুবকের অপরদিকে, যাদবপুরে সিপিএমের বুথ এজেন্টের চোখে লঙ্কার গুঁড়ো ছেটানো হলো, অভিযোগের তীর উঠে আসছে তৃণমূলের দিকে। বেলা যত বাড়ছে বিক্ষোভ হামলার ঘটনা ততোই বাড়ছে, সূত্র মারফত খবর পাঠান পিথন তুলিতে যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় রিপোর্ট তলব করেছেন কমিশন। ঘটনায় ঘটনাস্থলের প্রিসাইডিং অফিসারকে ফোন, নির্বাচন কমিশন অপরদিকে কেন্দ্র বাহিনীকে নিয়ে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলেন লকেট চ্যাটার্জি। চতুর্থ দফার নির্বাচনের অশান্তি ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। জবর দখলের অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। ফলে কোথাও ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে, কোথাও আবার ভোট বুথ এর মধ্যেই বুথ এজেন্টের চোখে লঙ্কার গুঁড়ো দেয়া হচ্ছে। সবমিলিয়ে পরিস্থিতি সরগরম সকালবেলায় ভোট দিতে গিয়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত প্রাণ হারালেন যুবক, যুবকের মৃত্যুর ঘটনায় কাঠগড়ায় নির্বাচন কমিশন প্রশ্ন উঠছে আইনের অনুশাসন নিয়ে।