দেশজুড়ে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক টিকা কর্মসূচি হবে ভারতের ৪ রাজ্য অন্ধ্রপ্রদেশ, অসম, গুজরাত ও পাঞ্জাবে৷ এই প্রক্রিয়া শুরু হবে আগামী সপ্তাহ থেকে৷ এমনটাই জানাচ্ছে কেন্দ্র৷
শুক্রবার পর্যন্ত সমস্ত রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে প্রশিক্ষণ সমাপ্ত হয়েছে। শুধুমাত্র লাক্ষাদ্বীপে প্রশিক্ষণ হবে ২৯শে ডিসেম্বর।

৪টি রাজ্যের মধ্যে প্রথমে পাঞ্জাবে হবে কোভিড-১৯ টিকার পরীক্ষামূলক টিকা কর্মসূচি৷ বৃহস্পতিবার রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলবীর সিংহ সিধু জানিয়েছেন, আগামী ২৮ এবং ২৯ ডিসেম্বর টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু করা হবে। লুধিয়ানা এবং শহিদ ভগৎ সিংহ নগরে দুইদিন টিকাকরণ কর্মসূচি চলবে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, সঠিক প্রস্তুতি এবং পরিকাঠামো আছে কী না এবং শেষ পর্যায়ে ভ্যাকসিন দেওয়ার সময় যাতে কোনও রকম সমস্যার মুখে পড়তে না হয়, সে জন্য এই পরীক্ষামূলক টিকা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, জেলাশাসক অথবা ম্যাজিস্ট্রেটের তত্ত্বাবধানে এই কর্মসূচি চালানো হবে । এছাড়াও এই কাজে সহযোগিতা করবে ইউনাইটেড নেশনস ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম(ইউএনডিপি) এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। প্রসঙ্গত, ভ্যাকসিন সরবরাহের ক্ষেত্রে পঞ্জাব যাতে অগ্রাধিকার পায়, সেই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী৷ তিনি এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠিও লেখেন।
প্রসঙ্গত, করোনা টিকাকরণের জন্য তৈরি আছে দিল্লির সরকার৷ বৃহস্পতিবার ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল৷ তিনি জানিয়েছেন, কেন্দ্র থেকে টিকা পাওয়া মাত্রই টিকাকরণ কর্মসূচি শুরু করে দেবেন তাঁরা৷ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে তিনটি ক্যাটাগরি করে শুরু হয়েছে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া৷