একটা বিয়ের সম্পর্ক ভাঙার বেশ কিছু কারণ থাকতে পারে, কিন্তুু একটা নির্দিষ্ট পোশাক পরে নাচতে অরাজি হওয়ায় কি বিবাহ বিচ্ছেদ হতে পারে? হ্যা পারে। এমন ঘটনার সাক্ষী থাকলো মিরাটের লিসারি গেটের ইজমাইল অঞ্চল। স্ত্রী জিন্স পরে নাচ করতে রাজি হননি। তাঁর ‘অন্যায়’ ‘সহ্য’ না করতে পেরে তাঁকে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটালো তাঁর স্বামী। মিরাটের এই ঘটনায় তাজ্জব সমাজ। স্বামীর কথা না শোনায় তিন তালাকের মুখে পড়া ওই মহিলা পরে থানায় অভিযোগ করেন।

পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে, পরে ওই ব্যক্তি শ্বশুর বাড়িতে গিয়ে ঝামেলা করেন এবং নিজের গায়েই আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করেতে যান। তখনই তাঁকে পরিবারের লোকেরা হাসপাতালে নিয়ে যায়। ওই ব্যক্তি এখন সুস্থ আছেন।

ওই অঞ্চলের বাসিন্দা আমিরুদ্দিন আট বছর আগে নিজের মেয়ের বিয়ে দিয়েছিলেন পিলখুয়ার বাসিন্দা আনাসের সঙ্গে। ওই ব্যক্তি দিল্লিতে চাকরি করেন।
আনাসের স্ত্রী পুলিশের কাছে অভিযোগ করেছেন যে তাঁর স্বামী তাকে নাচতে এবং গাইতে বাধ্য করছিলেন বারবার। তাঁকে জিন্স পরে নাচার জন্য জোর করছিলেন। তিনি রাজি না হওয়ায় আনাস দু’দিন আগে ‘তিন তালাক’ উচ্চারণ করেন। ওই মহিলা স্থানীয় পঞ্চায়েতেও যোগাযোগ করেছিলেন অসহায় হয়ে, কিন্তু তাতে কোনও সমাধান পাওয়া যায়নি। যদিও এখানেই শেষ নয়, এরপর নিজের গায়ে আগুন লাগিয়েও স্ত্রীকে ‘শিক্ষা’ দিতে চেয়েছিলেন আনাস। আনাস মঙ্গল বার রাতে তাদের বাড়িতে যায় এবং নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে দেয়।

ভারতে তিন তালাক নিষিদ্ধ হয়েছে। আইন করে তালাক প্রথা বন্ধ করা হয়েছিল। যাতে কোনও মুসলিম পুরুষ শুধুমাত্র তালাক উচ্চারণের মাধ্যমে স্ত্রী’র সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ করতে না পারেন।