নিউজপোল ডেস্কঃ চলতি বর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির সিডনিতে ভারত বনাম অস্ট্রেলিয়ার তৃতীয় টেস্ট ড্র হলেও ভারতের লড়াইয়ে মুগ্ধ সকলেই। সিডনি টেস্টের পঞ্চম দিন শুরু আগেই সকলে প্রায় ভেবেই নিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া জিতবে। কিন্তু শেষ দিনে অনবদ্য প্রদর্শন করে ম্যাচ জিততে না পারলেও সকলকে অবাক করে ড্র করে শেষ করল ভারত। অস্ট্রেলিয়ার দেওয়া ৪০৭ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ভারতীয় দল দ্বিতীয় ইনিংসে ৫ উইকেট হারিয়ে ৩৩৪ রান তোলে। হনুমা বিহারী ২৩ এবং রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৩৯ রানে অপরাজিত। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ থেকে শুরু করে একাধিক প্রাক্তন ক্রিকেটারেরাও ভারতের এই লড়াইকে সম্মান জানিয়েছে এবং প্রশংসাও করেছেন। অন্যদিকে রাজ্যের বিজেপি নেতা বাবুল সুপ্রিয়র বক্তব্যতে যেন তাচ্ছিল্যের সুর। 

এদিনের হনুমার কঠিন লড়াইকে উপেক্ষা করে বাবুল সুপ্রিয় টুইট করেন-“১০৯ বল খেলে ৭! অপ্রিয় কথাটা বলতে হচ্ছে। হনুমা বিহারী যে শুধু ভারতের জয়ের সম্ভাবনাকে মাঠে মারল তাই নয়, ক্রিকেটেরও খুন করল। জিততে পারি, এই মনোভাব থেকে নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখাটাও কিন্তু অপরাধ।” বাবুল সুপ্রিয় উদ্ভট এই মন্তব্য করে নেটিজেনদের সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছেন। চোট নিয়েও হনুমার দুর্দান্ত প্রদর্শনকে যেখানে বাহবা দিচ্ছেন সকলে সেখানে তাঁর মত ব্যক্তিত্বর এই মন্তব্যে অত্যন্ত ‘অপ্রয়োজনীয়’ বলে মনে করেছেন নেটিজেনরা। কেউ কেউ তার এই মন্তব্য দেখে তীব্র কটাক্ষ করেছেন যে তিনি ক্রিকেটের কিছুই বোঝেন না, সেই কারণে বিহারী-অশ্বিনের ইনিংসের গুরুত্ব কোনওদিনও বুঝবেন না। যদিও তিনি নিজেই জানিয়েছেন, ক্রিকেটের বিষয়ে বিশেষ কোনও জ্ঞান নেই তাঁর। তবে এধরণের পোস্ট কেন? প্রশ্ন করলেন নেটিজেনরা। এমনকি পোস্টটি ডিলিট করে দেওয়ার আর্জি জানান তাঁরা। 

শেষ দিন ৮ উইকেটে ভারতের জয়ের জন্য ৩০৯ রানের প্রয়োজন ছিল। সেখানে তৃতীয় টেস্টে ১২টি চার ও ৩টি ছক্কায় ৯৭ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেললেন ঋষভ পন্থ। এদিন পন্থের লড়াইও ছিল চোখে পড়ার মতো। ৭৭ রান করেন পূজারা। পঞ্চম দিনে ৫ উইকেটে ৩৩৪ রান করে সিডনিতে ম্যাচ ড্র করে ভারত। হনুমা বিহারী ১৬১ বলে ২৩ ও অশ্বিন ১২৮ বলে ৩৯ রানে ম্যাচ ড্র করে মাঠ ছাড়েন।