দেশের হয়ে পাঁচটি সোনার পদক জিতেছিলেন। সেই হিমা দাসকেই এবার রাজ্য পুলিশের বড় পদে বসাল অসম সরকার। তাঁকে রাজ্যের ডেপুটি সুপারিনটেনডেন্ট পদে বসানো হয়েছে।

বুধবার রাতে মন্ত্রিসভার বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল। সেখানেই বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় ও এরপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। আলোচনার একটি বিষয় ছিল হিমা দাস। গরিব পরিবার থেকে উঠে এসে দেশের নাম উজ্বল করেছেন হিমা। বছর কুড়ির হিমা ট্র্যাকে নিজের দ্রুত গতির জন্য গোটা দেশে ‘ধিং এক্সপ্রেস’ নামে পরিচিত। তাঁকে সম্মান জানিয়ে এবার ডিএসপি পদে বসানো হল।

রাজ্যের ক্রীড়ানীতিতেও কিছু বদল আনতে চাইছে অসমের মন্ত্রিসভা। বৈঠকে ঠিক হয়েছে, এবার থেকে রাজ্যের ক্রীড়াবিদদের ক্লাস-১ এবং ক্লাস-২ অফিসার পদে নিয়োগ করা হবে। পুলিশ, আবগারি, পরিবহণ-সহ বিভিন্ন দপ্তরে তাঁদের পোস্টিং হবে। হিমার মতো রাজ্যের অলিম্পিক, এশিয়ান গেমস এবং কমনওয়েলথ গেমসে পদকজয়ীদেরও নিয়োগ করা হবে ক্লাস-১ অফিসার হিসেবে। এমনটাই জানিয়েছেন অসমের শিল্পমন্ত্রী চন্দ্রমোহন পাটোয়ারি। অসম সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রশংসা করেছেন কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু।