নিউজপোল ডেস্ক : ফের ধর্ষণের শিকার এক তরুণী। এবার নিশানায় মুম্বই এর ক্লিনিক। কিছুদিন আগেই হাথরাস ধর্ষণের কান্ড প্রকাশ্যে আসতেই জনরোষের শিকার হয়েছিলো সেখানকার সরকার ও প্রশাসন। তবে মুম্বই এর এই ঘটনায় ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে ওই ক্লিনিকের ওয়াকফ বোর্ডের এক সদস্যকে।

প্রসঙ্গত, মুম্বই এর মাহিম এলাকার পুলিশ ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে অভিযুক্ত ডঃ মুদাসসির লম্বে কে। জানা গিয়েছে, গত ২৮শে জানুয়ারি নির্যাতিতাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত এই ডাক্তার। প্রাথমিক ভাবে তিনি ওই মহিলাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিলেও পরে তাঁকে হুমকি দেন। ফলস্বরূপ এই নির্যাতনকে মাথা পেতে না সহ্য করে এই তরুণী প্রকাশ্যে আনেন সমস্ত ঘটনাটি।

জানা গিয়েছে, এই মহিলা পেশায় একজন সমাজকর্মী। তিনি এই বিষয়ে পুলিশকে বলেছেন, “আমার সঙ্গে এই ডাক্তারের আলাপ একটা অনুষ্ঠানে। সেখানে আমরা দুজনের মধ্যে নম্বর পরিবর্তন করি। তারপর একদিন আমি ওর ক্লিনিকে শারীরিক অসুস্থতার জন্য চেকাপে গেলে আমায় ইঞ্জেকশন দিয়ে অচেতন করে ধর্ষণ করে। এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই আমার ডিভোর্স হয়ে গেছে।”

তিনি আরো বলেন,”তখন ধর্ষণের কারণে ডঃ মুদাসসির লম্বে আমায় বিয়ে করবেন বলে। কিন্তুু প্রতিশ্রুতি দূরের কথা, তিনি ক্রমশ আমায় মুখ না খোলার জন্য হুমকি দিতে থাকেন। তাই আমি পুলিশের দ্বারস্থ হলাম”। সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে দেখা গিয়েছে এই মহিলা বলছেন, যদি এই অভিযুক্তকে গ্রেফতার না করা হয় তাহলে তিনি বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করবেন। বর্তমানে এই অভিযুক্ত পুলিশি হেফাজতে রয়েছে।