দেশের বিমান সংস্থাগুলোর জন্যে বড় ঘোষণা করা হয়েছে কেন্দ্র- এর তরফে। এবার থেকে যাত্রীদের টিকিট সংক্রান্ত কত টাকা নেওয়া হবে, তা নির্ধারণ করবে দেশের বিমান সংস্থাগুলো। প্রসঙ্গত, কোভিড অতিমারির সময় কেন্দ্রের তরফ থেকে বিমান সংস্থাগুলোর উপর নির্দিষ্ট Airfare বসানো হয়েছিল। সরকারের তরফ থেকে সেই এয়ারফেয়ার তুলে নেওয়া হবে। এয়ারফেয়ার ( Airfare) তুলে নেওয়ায়, এবার থেকে ভাড়ার বিষয়টি বিমান সংস্থাগুলোর হাতে। তারা যে ভাড়া নির্ধারণ করবে, যাত্রীদের সেই ভাড়াতেই যেতে হবে।

Airfare: Airfare will be determined by the airlines
বিমান ভাড়া নির্ধারণ করবে বিমান সংস্থাগুলিই

কী অবস্থায় রয়েছে দেশের বিমান সংস্থাগুলো?

সাম্প্রতিককালে দেশের বিমান সংস্থাগুলো নিজেদের অসন্তোষ একাধিকবার ব্যক্ত করেছে কেন্দ্রের কাছে। লাফিয়ে বাড়ছে বিমানের জ্বালানির দর। কোভিডের জন্য ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পরিষেবা। দীর্ঘদিন ছিল যাত্রার উপর নিষেধাজ্ঞা। সব মিলিয়ে বিমান পরিষেবার অবস্থা সার্বিকভাবেই বেশ খারাপ। ইন্ডিগো তো একাধিকবার কেন্দ্রকে বিমানের জ্বালানির উপর নিয়ন্ত্রণ করার আর্জি জানিয়েছিল। পাশাপাশি, টিকিটের দাম বাড়ানোর কথাও বিমান সংস্থাগুলোর তরফ থেকে বলা হয়েছিল।

এমতাবস্থায় কেন্দ্রের এয়ারফেয়ার (Airfare) তুলে নেওয়া একাধিক কারণে গুরুত্বপূর্ণ। এতদিন পর্যন্ত, বিমানের ভাড়ার বিষয়ে, কোম্পানিগুলোকে কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে চলতে হত। এবার থেকে আর সেই নিয়ম রইল না। ভাড়ার পুরো বিষয়টি এবার থেকে কোম্পানিগুলোর হাতে থাকবে। এতে লাভবান হবে বিমান সংস্থাগুলি।