কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর (Sonia Gandhi) ব্যক্তিগত সচিবের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল।দিল্লি পুলিশ পিপি মাধবনের বিরুদ্ধে উত্তমনগর থানায় এফআইআর দায়ের এই মামলা দায়ের করেছে।

অভিযোগকারিনীর দাবি, চাকরি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাঁকে ধর্ষণ করা হয়েছে। ধর্ষণ করেছেন সোনিয়া গান্ধীর (Sonia Gandhi) ব্যক্তিগত সচিব পিপি মাধবন। সূত্রের খবর, মহিলাটি দলিত। তাঁর স্বামী দিল্লির কংগ্রেস অফিসে কাজ করত। কিন্তু ২০২০ সালে তাঁর মৃত্যু হয়। অভিযোগ, এরপর মহিলাকে চাকরির প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর (Sonia Gandhi) ব্যক্তিগত সচিব পিপি মাধবন। সেই প্রতিশ্রুতি দিয়েই তাঁকে ধর্ষণ করা হয়।

মহিলা জানিয়েছেন তাঁর স্বামী কংগ্রেস অফিসে হোর্ডিং লাগাতেন এবং অন্যান্য কাজ করতেন। তাঁর অভিযোগে উল্লেখ করেছেন, “ফেব্রুয়ারি ২০২০ সালে আমার স্বামীর মৃত্যুর পর, আমি একটি চাকরি খুঁজতে শুরু করি এবং মাধবনের সাথে যোগাযোগ করি। তিনি আমাকে প্রথমে চাকরির ইন্টারভিউর জন্য ডেকেছিলেন। তিনি ভিডিও কল করতেন এবং হোয়াটসঅ্যাপে আমার সাথে চ্যাট করতেন।” মহিলার অভিযোগ, “তিনি আমাকে উত্তম নগর মেট্রো স্টেশনের কাছে একটি বিচ্ছিন্ন জায়গায় নিয়ে যান এবং তার গাড়ির ভিতরে আমাকে জোর করে নিয়ে যান। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারিতে, তিনি আমাকে সুন্দর নগরের একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে যান এবং আমার অনুমতি ছাড়াই শারীরিক সম্পর্ক করেন।” তবে কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মাধবনের (Sonia Gandhi’s personal assistant) বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করা হয়েছে। বলা হয়েছে এই অভিযোগ মিথ্যা এবং ভিত্তিহীন।

আরও পড়ুন:SLST: চাকরি প্রার্থীদের নম্বর দেওয়ার নির্দেশ কলকাতা হাই কোর্টের