কলকাতা: করোনারকালীন পৃথিবীতে দিন দিন মাস্ক ও স্যানেটাইজারের চাহিদা বেড়েই চলেছে। বহু নামজাদা ব্রান্ড এখন স্যানেটাইজার বাজারে এনেছে। এবার সেই স্যানেটাইজারের উপরেই অতিরিক্ত ১৮ শতাংশ জিএসটি চাপাল কেন্দ্রীয় সরকার। এই নিয়ে ইতিমধ্যেই তোলপাড় জাতীয় রাজনীতি। অনেকেই সরকারের এই সিদ্ধান্তের কড়া সমালোচনা করেছেন। স্যানিটাইজারে অতিরিক্ত ১৮ শতাংশ জিএসটি নিয়ে এবার সরকারকে খোঁচা দিলেন বাংলার অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

এর আগেও মেধাবী ও মার্জিত ভাষায় লেখা এই অভিনেতার বহু টুইট অনেকের নজর কেড়েছে। সেই কারণে এখন প্রায়শই খবরের শিরোনামে থাকেন ‘গুমনামি’, ‘দ্বিতীয় পুরুষ’ খ্যাত অনির্বাণ। বৃহস্পতিবার অভিনেতা টুইটে লেখেন, “যাক বাবা, নিশ্চিন্ত হলাম। স্যানিটাইজারে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল আছে কিনা, জানা নেই, তবে ১৮ শতাংশ GST থাকলে ভাইরাস যে মরবেই, তা নিশ্চিত!” অবশ্য এখানেই থামেননি অনির্বাণ। ঠিক এরপরেই নিজস্ব ভঙ্গিতে তিনি আরও লেখেন, “ট্যাক্সে মিলায় ভাইরাস, প্যান্ডেমিক বহুদূর…!’ অভিনেতার এমন আদব-কায়দার সঙ্গে এখন পরিচিত বাংলার নেটিজেনরা।

বর্তমান সময়ে হ্যান্ড স্যানেটাইজার নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। বরং প্রতিদিন মানুষের চলার জন্য যা যা প্রয়োজন, তার মধ্যে অনেকটা জায়গা জুড়ে রয়েছে হ্যান্ড স্যানেটাইজার। সম্প্রতি এই নিত্য প্রয়োজনীয় হ্যান্ড স্যানেটাইজারে ১৮ শতাংশ কর চাপিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। যা কিছুতেই মেনে নিতে পারেননি অভিনেতা অনির্বাণ ভট্টাচার্য।

যেহেতু স্যানেটাইজারে অ্যালকোহল থাকে সে জন্যই জিএসটি বসানো হয়েছে। তবে এই নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন তিনি। তাঁর মতে, ‘স্যানিটাইজারে ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল আছে কিনা, জানা নেই।’ তবে করের বোঝায় মারা পড়বে ভাইরাস! সে ব্যাপারে বিশ্বাসী অনির্বাণ মজার ছলে লেখেন, ‘তবে ১৮ শতাংশ GST থাকলে ভাইরাস যে মরবেই, তা নিশ্চিত!’ সব মিলিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি অনির্বাণের ব্যাঙ্গ বহুদূর…।