আবারও হাজিরা এড়ালেন অনুব্রত (Anubrata Mandal) , বাড়তি সময় চাইলেন সিবিআই-এর কাছে। বর্তমানে তিনি বোলপুরের বাড়িতেই রয়েছেন। জানা গিয়েছে, বোলপুর মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসকদের পরামর্শ মতো বাড়িতেই চিকিৎসা চলছে তার।

আজ সকাল সাড়ে ১০ টা নাগাদ নিজাম প্যালেসে উপস্থিত হন অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mandal) ২ আইনজীবী।আর এদিন আইনজীবীর মারফত চিঠি পাঠিয়ে সিবিআইয়ের কাছে হাজিরার জন্য ১৪ দিন সময় চাইলেন অনুব্রত। সূত্রের খবর,এদিনের চিঠিতে শারীরিক অবস্থার কারণ দেখিয়েই সময় চেয়েছেন অনুব্রত মণ্ডল। চিঠির সঙ্গে তাঁর চিকিত্‍সা সংক্রান্ত নথিও জমা দিয়েছেন তিনি। ইতিমধ্যেই ই-মেল এবং হার্ড কপি জমা পড়েছে নিজাম প্যালেসে।

অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mandal) শারীরিক অবস্থা সঠিক কী প্রকার রয়েছে তা বোঝাতে এ দিন তাঁর আইনজীবীরা এসএসকেএম হাসপাতাল এবং বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের দুটি প্রেসক্রিপশন সিবিআই-এর কাছে জমা দিয়েছেন । এসএসকেএম হাসপাতালের তরফ থেকে যে প্রেসক্রিপশন করা হয়েছিল এবং বোলপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের যে প্রেসক্রিপশন তার মধ্যে কী বৈষম্য রয়েছে এবং গোটা ব্যাপারটি খতিয়ে দেখার জন্য এ বার অন্যান্য চিকিৎসকদের সঙ্গেও কথা বলবে সিবিআই ।

গত মঙ্গলবার অনুব্রত মণ্ডলের (Anubrata Mandal) স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে গিয়েছিলেন বোলপুর মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকদের একটি দল। তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন, অনুব্রত ভুগছেন শ্বাসকষ্ট, পাইলস, ফিসচুলা ও মানসিক ক্লান্তিতে। তাঁর বেডরেস্টের প্রয়োজন আপাতত। তবে পরে চিকিৎসক বলেন, তাঁকে ১৪ দিনের বিশ্রামের জন্য লিখে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছিলেন কেষ্ট।বারবার এইভাবে হাজিরা এড়ানোর কারণে মনে করা হচ্ছে এবার কেষ্টর বিরুদ্ধে গুরুত্বর পদক্ষেপ নেবে সিবিআই।

আরও পড়ুন:Manik Bhattacharya: টেট মামলায় মানিক ভট্টাচার্যকে ফের তলব ইডির