আগামী দিনে ইউজার মদ্যপ অবস্থায় আছেন কিনা তা জানান দেবে স্মার্টফোন।

নিউজপোল ডেস্ক: আগামী দিনে ইউজার মদ্যপ অবস্থায় আছেন কিনা তা জানান দেবে স্মার্টফোন। উত্তেজিত হওয়ার কোনো কারণ নেই, আসলে মদ্যপ অবস্থায় ড্রাইভিং বা রাস্তায় ঘোরাঘুরি রুখতেই, এই নতুন ফিচারটি আনার চিন্তা-ভাবনা করা হচ্ছে। আপাতত, থার্ড পার্টি অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে এই রকম ফিচার পাওয়া যাবে এমনটাই শোনা যাচ্ছে। সম্প্রতি স্ট্যানফোর্ড এবং পিটসবার্গের মার্কিন বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালিত একটি গবেষণার রিপোর্ট থেকে অ্যালকোহল ও ড্রাগস সম্পর্কিত একটি জার্নাল প্রকাশিত হয়েছে, সেখানেই এই বিষয়টি সামনে এসেছে। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে প্রায়ই স্মার্টফোনে নতুন ও চমকপ্রদ ফিচার যুক্ত হয়, সুবিধা মেলে নিত্যনতুন অ্যাপ্লিকেশনেরও। আমরাও এই বিষয়ে বেশিরভাগ তথ্য আপনাদের কাছে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করি। এর সঙ্গে যুক্ত হল নতুন আরও এক ফিচার।

২২ জন প্রাপ্তবয়স্ক স্বেচ্ছাসেবী নিজেদের রক্তে অ্যালকোহলের মাত্রা ০.২% অবধি বাড়াতে ভোডকা পান করেছিলেন, যা আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্রের ড্রাইভারদের জন্য অনুমোদিত সীমার (০.০৮ শতাংশ) চেয়ে কিছুটা বেশি। এরপর, ওই ২২ জন, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন Phyphox-এর মাধ্যমে একটি পর্যবেক্ষণ শুরু করেন, যা তাদের বেল্টের সাথে সংযুক্ত স্মার্টফোনের ট্রিপল অ্যাক্সিস অ্যাক্সেলোমিটার থেকে ডেটা অ্যাক্সেস করে। ওই মদ্যপানকারীদের প্রথমে সোজা লাইনে দশ ধাপ সামনে এবং তারপর দশ ধাপ পেছনে হাঁটতে বলা হয়েছিল। মদ্যপান করার আগে ও পরে ওই ২২ জনের রক্তে অ্যালকোহলের স্তর পরীক্ষা করা হয়েছিল এবং ফোনের অ্যাক্সিলোমিটারের ডেটা চেক করা হয়েছিল।

গবেষকরা দেখেছেন, ফোনের অ্যাক্সিলোমিটার, ৯২.৫% অ্যাকিউরেসির সাথে ইউজারের পরিবর্তন শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে। তবে, আরো সুনির্দিষ্ট ফলাফল পেতে বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা বা পরিকল্পনা করা হচ্ছে। মনে করা হচ্ছে, সুদূর ভবিষ্যতে এই ফিচারটি মদ্যপানের পর ইউজারদের গাড়ি চালানো থেকে বিরত রাখতে ব্যবহৃত হতে পারে।