কোমরের চোট কতটা গুরুতর, তা নিয়ে সংশয় ছিল। কোর্টে ফিরে রাফায়েল নাদাল প্রমাণ করলেন, তিনি শুধু ফিটই নন, ২১তম গ্র্যান্ড স্লাম জেতার জন্য মুখিয়েও আছেন। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের প্রথম রাউন্ডে লাসলো জেরেকে ৬-৩, ৬-৪, ৬-১ হারালেন স্প্যানিশ টেনিস তারকা।

নাদালের মতোই প্রথম রাউন্ডে জয় পেলেন পঞ্চম বাছাই স্তোফানোস সিসিপাস। ফ্রান্সের জাইলস সাইমনকে হারালেন ৬-১, ৬-২, ৬-১। ভাসেক পস্পিসিলকে ৬-২, ৬-২, ৬-৪ হারালেন ড্যানিল মেদভেদেভ। অস্ট্রেলিয়ার আলেক্সেই পপিরিন আবার অঘটন ঘটালেন মেলবোর্ন পার্কে। লম্বা ম্যাচে টুর্নামেন্টের ১৩তম বাছাই ডেভিড গফিনকে হারিয়ে চমকে দিলেন তিনি। ৩-৬, ৬-৪, ৬-৭ (৪), ৭-৬ (৬), ৬-৩ সেটে জিতে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে পড়েছেন তিনি।

ম‍্যাচের পর নাদাল বলেছেন, ‘খুব কঠিন ১৫টা দিন কাটিয়েছি। আজকের দিনটা কোনও রকমে পার করতে চেয়েছিলাম। দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠতে পেরে ভালো লাগছে। স্ট্রেট সেটেই জিততে চেয়েছিলাম।’

প্রায় বছর পর কোর্টে ফিরে সহজ জয় পেলেন মেয়েদের শীর্ষ বাছাই অ্যাশ বার্টি। ৬-০, ৬-০ হারালেন ডাঙ্কা কোভিনিচকে। জয় পেলেন ক্যারোলিনা প্লিসকোভা, এলিনা সিতোলিনা। ছেলেদের মতো মেয়েদের টেনিসেও অঘটনের দিন আজ। ছিটকে গেলেন ১২তম বাছাই ভিক্টোরিয়া আজারেঙ্কা। জেসিকা পেগুলা এই প্রথম খেলছেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন। আনকোরা পেগুলাই ৭-৫, ৬-৪ ছিটকে দিলেন দু’বারের অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চ্যাম্পিয়ন আজারেঙ্কাকে।

চোটের জন্য অস্ট্রেলিয়ান ওপেন থেকে সরলেন জোহানা কন্তে। প্রথম রাউন্ডে তাঁর খেলা ছিল স্লোভানিয়ার কাজা জুভানের বিরুদ্ধে। ৬-৪ জিতেওছিলেন প্রথম সেটটা। কিন্তু দ্বিতীয় সেট চলাকালীন পেটের পেশিতে চোট পান। মেয়েদের ১৩ নম্বর বাছাই শেষ পর্যন্ত চোটের কারণেই ছিটকে গেলেন।