চেতলার (Chetla) ঝুপড়িতে বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা । এই আগুনে ঝলসে গিয়েছে দুটি শিশু বলে খবর মিলেছে।

আগুনের এই লেলিহান শিখা দেখে ছড়াল ব্যাপক চাঞ্চল্য। দুই শিশু ছাড়া আরও দু জন গুরুতর জখম হয়েছেন।

তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় এসএসকেএম হাসপাতালে। সেখানে ভর্তি পর্যন্ত করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে খবর, শুক্রবার দুপুরে চেতলার এই ঝুপড়ির একটি ঘরে আগুন লাগে। সেখান থেকে কালো ধোঁয়া বেরতে দেখা যায়।

তড়িঘড়ি খবর দেওয়া হয় দমকলে। দমকলের চারটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছয়। ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় আগুন নেভাতে বেগ পেতে হয়েছে।

কীভাবে ঝুপড়িতে আগুন লাগল তা এখনও স্পষ্ট নয়। গ্যাস সিলিন্ডার লিক করে এই ঘটনা ঘটেছে বলে মনে করছেন দমকল কর্মীরা।

পরিবহণমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম এখানে এসে বিষয়টি খতিয়ে দেখেন। আর ওই শিশুদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে ফোন করে ব্যবস্থা করে দেন।

ঝুপড়ির ঘর থেকে সিলিন্ডার বের করে দেওয়া হয়েছে। ফিরহাদ হাকিমের তৎপরতাতেই জখমদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার বন্দোবস্ত করা হয়।

উল্লেখ্য, নারকেলডাঙা, সল্টলেক এবং নিউটাউনের ঝুপড়িতে সম্প্রতি আগুন লেগে যায়। তবে সেখানে হতাহতের সেরকম ঘটনা ঘটেনি।

দমকল সূত্রে খবর, এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা নিয়ে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। খতিয়ে দেখা হচ্ছে।