নিউজপোল ডেস্ক: গত সপ্তাহে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ২০ মিনিট ধরে টেলিফোনে কথাবার্তা হয়। এরপর থেকেই উপমহাদেশের রাজনৈতিক পরিবেশ সরগরম হয়ে ওঠে। এই ইস্যুতে এবার মুখ খুলেছেন বাংলাদেশের বিতর্কিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন।

নিজের ফেসবুক ওয়ালে লেখিকা তসলিমা নাসরিন লিখেছেন,’ ভারতের সাহায্যেই জন্মেছে বাংলাদেশ। নতুন বন্ধু পেয়ে পুরনো বন্ধুকে যেন ভুলে না যায় তারা। তসলিমা ফেসবুকে আরোও লিখেছেন,’ একাত্তরে বাংলাদেশের জন্মে সাহায্য করেছিল ভারত। ১৯৭৫ সালে তার (শেখ হাসিনার) বাবার (মুজিবর রহমান) হত্যার পর স্বামী আর সন্তানদের নিয়ে অতিথি হয়ে ভারতে ছিলেন হাসিনা। এখন হাসিনা নতুন বন্ধুকে জড়িয়ে ধরতে পুরনো বন্ধুর হাত ছাড়ছেন। এটা মোটেও ভাল বুদ্ধি নয়।’

তসলিমা নাসরিনের এহেন ফেসবুক পোস্ট ঘিরে বাংলাদেশ সরকার যথেষ্ট অস্বস্তির মধ্যে পড়ে গিয়েছে। ঢোক গিলে বাংলাদেশের তরফে পাকিস্তানের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে যাবতীয় জল্পনাতে ফুলস্টপ টানার চেষ্টা করা হয়েছে। সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, এটি একটি সৌজন্যমূলক কথোপকথন হয়েছে ইমরান আর হাসিনার মধ্যে। করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা নিয়ে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী আলোচনা করেছেন। এই কথোপকথনের অন্য কোন তাৎপর্য খুঁজে বের করা সমীচীন নয়।

বস্তুত বাংলাদেশের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক মসৃণ ছিল না। পাকিস্তান সুযোগ খুঁজছিলো দুই দেশের সম্পর্ক জোড়া লাগানোর। বিশেষত শেষের ৫ বছর পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের অবনতি দেখা গিয়েছিল। কিন্ত সাম্প্রতিক করোনা মহামারি অনেক হিসেব নিকেশে তালগোল পাকিয়ে দিয়েছে। এমন আবহে ২০ মিনিটের টেলিফোনিক কথাবার্তা নিঃসন্দেহে পাকিস্তানকে অনেকটাই স্বস্তি দেবে এমনই মত ওয়াকিবহাল মহলের।