নিউজপোল ডেস্ক: গত কয়েক সপ্তাহে দেশে করোনা পরীক্ষার সংখ্যাও বেড়েছে হু হু করে। কেন্দ্র এ দিন জানিয়েছে, গত দু’সপ্তাহে দেড় কোটির কাছাকাছি পরীক্ষা হয়েছে দেশে। মোট পরীক্ষার সংখ্যা সাড়ে ৪ কোটির কাছে পৌঁছে গিয়েছে। এরমধ্যেই দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমণের গ্রাফ একদিন কিছুটা নামার পরই ফের ঊর্ধ্বমুখী। টানা কয়েকদিন একদিনে সংক্রমণের সংখ্যা ছিল ৭৫ হাজারের উপরে। তা প্রায় ৭৯ হাজারের কাছাকাছিও চলে যায়। মঙ্গলবার সেই সংখ্যাটা নেমেছিল ৭০ হাজারের নীচে। তবে বুধবার আবারও সেই গ্রাফে ঊর্ধ্বগতি লক্ষ্য করা গেল। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৮ হাজারেরও বেশি সংক্রমণে দেশে করোনায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৩৮ লাখের কাছাকাছি চলে গেল। মৃত্যু হয়েছে আরও শতাধিক মানুষের।

তবে, উদ্বেগ এখনও সেই পাঁচটি রাজ্য ঘিরে – মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু এবং উত্তরপ্রদেশ। স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, দৈনিক আক্রান্তের প্রায় ৫৬ শতাংশই এই পাঁচটি রাজ্যের। এ দিকে, সংক্রমণের ব্যাপকতা বুঝতে মঙ্গলবার থেকে দিল্লিতে সেরো সার্ভের তৃতীয় পর্যায় শুরু হয়েছে। প্রকাশ্যে এসেছে চেন্নাইয়ের সেরো সার্ভের রিপোর্ট, যাতে দেখা গিয়েছে, শহরের জনসংখ্যার পাঁচ ভাগের এক ভাগ ইতিমধ্যেই সংক্রামিত হয়ে গিয়েছেন! বুধবার সকালে প্রকাশিত মেডিক্যাল বুলেটিনে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭৮,৩৫৭ জনের শরীরে মিলেছে করোনাভাইরাস। নয়া সংক্রমণে মোট আক্রান্তের সংখ্য়া হয়েছে ৩৭,৬৯,৫২৩ জন। এখনও চিকিত্‍‌সাধীন রয়েছেন ৮,০১,২৮২ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২৯,০১,৯০৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬২,০২৬ জন। এখনও পর্যন্ত দেশে সুস্থতার হার ৭৬.৯৮%। মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬৬,৩৩৩। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১০৪৫ জনের। মৃতের হার ১.৭৬ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১০,১২,৩৬৭ জনের কোভিড পরীক্ষা হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রক। দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে ভারত এখন শুধুমাত্র আমেরিকা এবং ব্রাজিলের পরে।

এ দিকে, মঙ্গলবার পর্যন্ত রাজ্যে করোনা আক্রান্ত বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৬৫ হাজার ৭২১ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২ হাজার ৯৪৩ জনের কোভিড ধরা পড়েছে। তবে, দেড় লক্ষের বেশি আক্রান্ত হলেও বাংলায় এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা মাত্র ২৪ হাজার ৮২২। গোটা রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ লক্ষ ৩৭ হাজার ৬১৬ জন। এর মধ্যে শুধু মঙ্গলবারই করোনা মুক্ত হয়েছেন ৩,৩৪৬ জন। পশ্চিমবঙ্গে ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত করোনাভাইরাস থেকে সুস্থতার হার ৮৩.০৪ শতাংশ। ভাইরাসের কামড়ে রাজ্যে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৩ হাজার ২৮৩ জনের। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৫৫ জন।