নিউজপোল ডেস্ক: ‌জাতে দলিত, তাই তাঁর মৃতদেহ নিয়ে যাওয়া যাবে না হিন্দুদের জমির ওপর থেকে। এই কারণ দেখিয়ে তাঁর দেহ দড়ি দিয়ে ঝুলিয়ে ব্রিজের নীচে ফেলে দেওয়া হয়। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি গতসপ্তাহে ঘটেছে তামিলনাড়ুর ভেলোরে। ২০ ফুট উঁচু ব্রিজের ওপর থেকে মৃতদেহ ফেলে দেওয়ার ঘটনাটি ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। এরপরই প্রকাশ্যে আসে সেটি।


জানা গিয়েছে, নারায়ণপুরামের দলিত কলোনীর বাসিন্দা এন কুপ্পাম শুক্রবার দুর্ঘটনায় মারা যান। শনিবার তাঁর আত্মীয়রা কুপ্পামের শেষকৃত্য সম্পন্ন করার সময় এই গোটা ঘটনাটি ঘটে। দলিত ব্যক্তির দেহ যে রাস্তা দিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল সেই রাস্তার ওপরই ছিল কিছু হিন্দু উচ্চবর্ণদের জমি। যদিও স্থানীয়দের মতে তা বেআইনিভাবে ছিনিয়ে নিয়েছেন হিন্দুরা। উচ্চবর্ণের হিন্দুরা দলিত দেহ তাঁদের জমির পাশ দিয়ে নিয়ে যেতে আপত্তি জানায়। এরকম পরিস্থিতিতে কুপ্পামের আত্মীয়দের কিছু করার ছিল না। তাঁরা বাধ্য হয়েই কুপ্পামের দেহকে দড়ি দিয়ে বেঁধে ব্রিজের ওপর থেকে নীচে ফেলে দেয় এবং কাঁধে করে ওই জায়গা থেকে দেহটিকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। এই ঘটনা রীতিমতো সাড়া ফেলেছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। অনেকেই তীব্র নিন্দা করেছেন।