নিউজপোল ডেস্ক:‌ দেশে আর্থিক মন্দা চরমে। একের পর এক সংস্থা থেকে ছাটাই করা হচ্ছে কর্মী। এমনকী এই তালিকা থেকে বাদ পড়ছে না সরকারি সংস্থা। বন্ধ হচ্ছে বিএসএনএল। বাকি দুনিয়ার হালও খুব ভাল নয়। আর্থিক মন্দার রেশ পড়ল ব্রিটেনের ‘হংকং অ্যান্ড সাংহাই ব্যাঙ্ক কর্পোরেশন’ (‌এইচএসবিসি)‌‌–র ওপর। খরচ কমাতে একসঙ্গে ১০ হাজার কর্মীকে ছেঁটে ফেলার সিদ্ধান্ত নিল এই ব্যাঙ্ক। অন্তর্বর্তী সিইও নোয়েল কুইন নাকি গোটা ব্যাঙ্কিং গ্রুপের ব্যয় সঙ্কোচন করতে চান, বলছে তাঁর ঘনিষ্ঠরা। নোয়েলের এই সিদ্ধান্তের কারণে ১০ হাজার কর্মী কাজ হারাবেন বলে খবর।
বেশ কিছুদিন ধরেই আমেরিকা-চীনের মধ্যে চলছে বাণিজ্য যুদ্ধ। ফলে ইদানীং দু’দেশেরই দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য মার খাচ্ছে। এর নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে মার্কিন ব্যাঙ্কগুলির ওপর। ব্রেক্সিটের জন্য ব্রিটেন সহ গোটা ইউরোপেই রাজনৈতিক টানাপোড়েন চলছে। এই ব্রেক্সিটের প্রভাবে ধুঁকছে বহু শিল্প। ব্যবসায় মন্দা দেখা দিয়েছে। শিল্পমহল নতুন বিনিয়োগে উত্‍সাহ হারাচ্ছে। টান পড়ছে ব্যাঙ্কের মুনাফায়।
চলতি বছরের আগস্টে হঠাত্‍ তত্‍কালীন সিইও জন ফ্লিন্টের বিদায় ঘোষণা করেছিল এইচএসবিসি। ব্যাঙ্ক চেয়ারম্যান মার্ক টাকারের সঙ্গে মতবিরোধের জেরেই তাঁকে সরতে হয় বলে খবর। আরও শোনা যায়, চেয়ারম্যান মার্ক টাকার কর্মী ছাঁটাই করে খরচ কমানোর প্রস্তাব রেখেছিলেন। কিন্তু সেই প্রস্তাবে সায় দেননি জন ফ্লিন্ট। জন ফ্লিন্ট চলে যাওয়ার পরে নোয়েল কুইন অন্তর্বর্তী সিইও পদে বসেন। এবার কুইন চেয়ারম্যানের ইচ্ছাকে বাস্তবায়ন করতে চলেছেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই মন্দার সময় খরচ কমিয়ে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে এইচএসবিসি।