মৃত্যু মিছিল থামছে না। শ্মশানের বাইরে লাইন পড়ে যাচ্ছে কোভিডে মৃতদের। বাধ্য হয়েই তাই শ্মশানের বাইরে ‘হাউস ফুল’ বোর্ড ঝুলিয়ে দিল কর্নাটকের একটি শ্মশান। কর্নাটকের চামরাজপেটের শ্মশান এটি।

এই শ্মশানে একদিনে ২০টি মৃতদেহ দাহ করার পরিকাঠামো রয়েছে। কিন্তু কর্তৃপক্ষের বার বার বলা সত্ত্বেও শ্মশানের বাইরে মৃতদেহের লাইন পড়ে যাচ্ছিল। ভিড়ও বাড়ছিল। এই পরিস্থিতিতে বাধ্য হয়েই ‘হাউস ফুল’ বোর্ড ঝুলিয়ে দেন তাঁরা।

ইতিমধ্যে কর্নাটক সরকার ২৩০একর জমি ধার্য করেছে কোভিড শ্মশানের জন্য। তা সত্ত্বেও কোভিড রোগীর মৃতের সংখ্যার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে পেরে ওঠা যাচ্ছে না। প্রায় প্রতিটি শ্মশানের বাইরেই কোভিডে মৃতদের লম্বা লাইন পড়ে যাচ্ছে। গত রবিবার মোট ২১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে কর্নাটকে। তার মধ্যে বেঙ্গালুরুতেই হয়েছে ২০টি মৃত্যু।

এই শোচনীয় অবস্থা দেখে এর আগে প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিটি পরিবারকেই প্রিয়জনের শেষকৃত্যের জন্য তাঁদের নিজস্ব জমি ব্যবহার করার অনুরোধও করা হয়েছে।