নিউজপোল ডেস্ক:‌ অবশেষে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে বিধানসভায় প্রস্তাব আনতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সেই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর মতে, বিধানসভায় সিএএ বিরোধী প্রস্তাব এনে কোনও লাভ হবে না। এধরনের প্রস্তাব সংবিধান বিরোধী।
দু’‌দিনের সফরে কোচবিহারে গিয়েছেন বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বুধবার সকালে হাঁটতে বেরিয়ে তিনি বলেন, ‘‌বিধানসভায় সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী প্রস্তাব এনে লাভ হবে না। কারণ এটা এখন সাংবিধানিক আইন। এভাবে আসলে সংবিধানের বিরুদ্ধে প্রস্তাব নেওয়া হচ্ছে।’ তাঁর কটাক্ষ, ‘‌এ ধরনের নাটক আমরা আগেও দেখেছি। অনেক প্রস্তাব আগেও নেওয়া হয়েছে। কাজেই এ ধরনের প্রস্তাব এনে পরিবর্তন হয়নি।’‌
এখানেই থামেননি দিলীপ ঘোষ। বাম, তৃণমূল এবং কংগ্রেসের এক সঙ্গে সিএএ–র বিরোধিতা করাকেও কটাক্ষ করেছেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর মন্তব্য, ‘‌কোন কোন ইস্যুতে ওঁরা এক আছেন আর কোন ইস্যুতে আলাদা, সেটা আগে ঠিক করুক। এর আগেও দিদিমণি নেতা হতে গিয়েছিলেন। সবাই দিদিমণিকে ছেড়ে চলে গিয়েছেন। সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের ক্ষেত্রেও তাই হবে।’‌
বিশিষ্ট আইনজীবী তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কপিল সিবাল আগেই জানিয়েছেন, সংসদে যে আইন পাশ হয়েছে, সেটা কোনও রাজ্য সরকার অমান্য করতে পারে না। এই কথা ধরেই দিলীপবাবুর দাবি, পশ্চিমবঙ্গেও সিএএ–এনআরসি হতে বাধ্য।