নিউজপোল ডেস্কঃ করোনা ভাইরাসে শিশুরাও আক্রান্ত হয়েছে। তবে সেই আক্রান্তের হার বেশ খানিকটা কম। তবে তার মানে শিশুরা করোনায় কম আক্রান্ত হচ্ছেন বলেই বিশেষজ্ঞরা মনে করছিলেন। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের গবেষণায় নতুন রিপোর্ট উঠে এসেছে। সেখানে দেখা গিয়েছে, তিন সপ্তাহ করোনার জীবানু কোনও উপসর্গ ছাড়া বহন করতে পারে শিশুরা। আর এই খবরেই চক্ষু চড়কগাছ অভিভাবকদের।

 

দক্ষিণ কোরিয়ার কয়েকজন গবেষক দাবি করেছেন, তিন সপ্তাহ পর্যন্ত শিশুদের নাকে করোনা বাসা বেঁধে থাকতে পারে। তাঁরা দাবি করেছেন, উপসর্গ ছাড়াই শিশুরা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। দক্ষিণ কোরিয়ায় ২২ হাসপাতালে ৯১ জন শিশুর ওপর গবেষণা করে গবেষকরা এই সিদ্ধান্তে এসেছেন বলে জানা গিয়েছে। ওই গবেষণা বলছে, শিশুদের শরীরে করোনা জোরালো আঘাত আনতে না পারলেও তাদের সংক্রমিত করে তুলছে। উপসর্গহীন ওই শিশুদের থেকেও অন্যরা সংক্রমিত হচ্ছেন।

বিজ্ঞানারা দাবি করেছেন, প্রবীণদের তুলনায় শিশুদের ওপর করোনা কম প্রভাব ফেলছে। কখনও কখনও কোনও উপসর্গ দেখা দিচ্ছে না। উপসর্গ দেখা দিলে তা মৃদু বলেই জানা গিয়েছে। তবে শিশুদের থেকে অন্যদের করোনায় সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা কম। হাঁচি বা কাশির মতো উপসর্গ না থাকলে, শিশুটির থেকে করোনা সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা কম বলে বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন।