গত বছর ডিসেম্বর মাসে National Eligibility Test  বা NET পরীক্ষা আয়োজিত হওয়ার কথা থাকলেও দেশে করোনা ভাইরাসের প্রকোপের কারণে পিছিয়ে যায় সেই পরীক্ষা।

সেই থেকে বিগত দশ মাসে মোট ৪ বার পিছিয়েছে এই নেট পরীক্ষা। সাধারণ নিয়ম অনুযায়ী, বছরে মোট দু’বার আয়োজিত হয় এই পরীক্ষা।

এই পরীক্ষা হল পরীক্ষার্থীদের কলেজে অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ হওয়ার যোগ্যতার মাপকাঠি।

এছাড়াও, এই পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বেশ কিছু মেধাবী প্রার্থীদের গবেষণার জন্য ছাড়পত্রও প্রদান করা হয়।

পরীক্ষায় সময়সূচী ঠিক রাখতে, ডিসেম্বরে(December) পরীক্ষা বাতিল হওয়ার পর ডিসেম্বর ও জুনের পরীক্ষা একসঙ্গে নেওয়ার পরিকল্পনা করে।

এই পরীক্ষার আয়োজক সংস্থা National Testing Agency বা NTA।

অক্টোবর মাসের ১৭ থেকে ২৫ তারিখের মধ্যে এই পরীক্ষা হওয়ার কথা ছিল, কিন্তু তা ফের পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে করোনার কারণে।

কবে এই পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে, সেই বিষয়ে এখনও পরীক্ষার্থীদের কিছুই জানায়নি NTA। বার বার পরীক্ষা পিছনোর কারণে ক্ষুব্ধ NET পরীক্ষার্থীরা।

Election is happening but when will be taken NET exam
প্রতীকী ছবি

এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়েছেন নেট(NET) পরীক্ষার্থীরা।

কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীর কাছে তাদের দাবি দ্রুত এই পরীক্ষার নতুন দিনক্ষণ ঘোষণা করা হোক।

পরীক্ষার অন্তত ১০-১৫ দিন আগে পরীক্ষার অ্যাডমিট কার্ড প্রদান করার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

এছাড়াও,পরীক্ষার জন্য ভালো করে প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য অন্তত এক মাস আগে যেন পরীক্ষার দিনক্ষণ ঘোষণা করা হয় এমনটাই দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

টুইটারের মতো সামাজিক মাধ্যমে #ReleaseNETEXAMDATE নামক হ্যাশট্যাগ দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় আন্দোলন শুরু করেছেন তাঁরা।

অন্যদিকে, এই পরীক্ষার আয়োজক সংস্থা National Testing Agency জানিয়েছে যে খুব শীঘ্রই তাঁরা এই পরীক্ষার নতুন দিনক্ষণ প্রকাশ করবে।

সব রাজ্যে নির্বাচনের দিনক্ষন প্রকাশ হচ্ছে ঠিকই কিন্তু পরীক্ষার দিন ঘোষণার সময় হচ্ছে দেরী; স্বাভাবিকভাবেই এই প্রশ্ন তুলছেন সাধারণ মানুষ।

আরও পড়ুন – Luizinho Faleiro: গোয়ায় বড় চাল মমতার, দায়িত্ব পেলেন লুইজিনহো ফালেইরো