আজ, বৃহস্পতিবার ভোর থেকেই উত্তপ্ত কাশ্মীর। চলছে গুলিবর্ষণ। গুলির আওয়াজে সকালে ঘুম ভাঙে কাশ্মীরের উপত্যকার মানুষদের। চিরুনি তল্লাশি করে জঙ্গিদের খুঁজে বের করে এনকাউন্টার (encounter) চালাল ভারতীয় সেনা (security forces)।

সকাল সকাল খতম হলো এক জঙ্গি (One terrorist killed)। বৃহস্পতিবার সকালে এনকাউন্টার(encounter) শুরু হয় দক্ষিণ কাশ্মীরের শোপিয়ান জেলার চিত্রাগ্রামে।

একাধিক জঙ্গি সেই গ্রামে লুকিয়ে আছে এমন খবর পেয়ে সেখানে বৃহস্পতিবার ভোরে হঠাৎ হানা দেয় ভারতীয় সেনা। এনকাউন্টার(encounter) পর্ব শুরু হওয়ার পরেই টুইট করে তা জানায় কাশ্মীর জোন পুলিশ।

গোটা পরিস্থিতির তথ্য জানিয়ে আপডেট(update) দেয় তারা। বৃহস্পতিবার ভারতীয় সেনার সঙ্গে এনকাউন্টার পর্বে সামিল ছিল জম্মু কাশ্মীর পুলিশ এবং সিআরপিএফ কর্তারা।

যৌথ বাহিনীর হঠাৎ গুলিবর্ষণ কোণঠাসা করে দিয়েছিল জঙ্গিদের। ধরাশায়ী অবস্থা হয়ে গিয়েছিল তাদের।

গুলির লড়াই শুরু হতেই পিছু হটতে শুরু করে জঙ্গিরা।

তবে এর মধ্যেই একজন জঙ্গির খতম হওয়ার খবর মেলে।

গোপন সূত্রে খবর পেয়েই কাশ্মীরের(Kashmir) ওই গ্রামে অভিযান চালিয়ে তল্লাশি শুরু করে যৌথ বাহিনী।

Encounter happened in Kashmir at dawn
কাশ্মীর পুলিশ

ভোরবেলা মুহূর্তের মধ্যে গোটা গ্রাম ঘিরে ফেলে সেনারা।

শুরু হয় গুলিগালাজ তার ফলেই ঘটে এনকাউন্টার।

জঙ্গিরা সেনার উপস্থিতি টের পাওয়া মাত্রই গুলি চালায়।

পাল্টা জবাব দেয় কাশ্মীরের পুলিশ বাহিনীও।

পুলিশের সূত্রে খবর, ওই এলাকায় এখনও আরও দুই তিনজন জঙ্গি আত্মগোপন করে রয়েছে।

পুরো তল্লাশির কাজ শেষ হলে তবেই বলা যাবে যে কতজন জঙ্গিকে এনকাউন্টার করতে পারল সিআরপিএফ(CRPF) ও কাশ্মীর পুলিশ।

আরও পড়ুন – Travel: পুজোয় ঘুরে আসুন যোগী রাজ্যে