নিউজপোল ডেস্ক: নেটফ্লিক্সের ব্লকবাস্টার ওয়েব সিরিজ সেক্রেড গেমস সিজন ২ মুক্তি পেল ১৫ আগস্ট। আমজনতার মুখে মিশ্র প্রতিক্রিয়া শোনা গেলেও টানটান উত্তেজনার এই সিরিজটি দর্শকদের ঘুম কেড়ে নিয়েছে রীতিমতো। সদ্য প্রকাশিত সেক্রেড গেমস রাতের ঘুম উড়িয়েছে এই ভারতীয় ব্যক্তিরও। তবে অন্য কারণে। এই সিজনের প্রথম এপিসোডে একটি বিশেষ দৃশ্যে গ্যাংস্টার ইসার যে মোবাইল নম্বর শেয়ার করা হয়েছে তা আসলে শারজা নিবাসী কুনহাবদুল্লা সিএমের। ফলে ১৫ আগস্টের পর থেকেই একের পর এক মোবাইল কলে রাতের ঘুম উড়ে যাওয়ার জোগাড় হয়েছে তাঁর।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর বাসিন্দা কুনহাব্দুল্লা স্থানীয় তেল সংস্থায় কাজ করেন। সকাল ৮টা থেকে সন্ধে ৭টা পর্যন্ত তাঁকে কাজ করতে হয়। ‘সেক্রেড গেমস’ কী, তাও জানেন না তিনি। এই ওয়েব সিরিজটির নাম শুনে কুনহাব্দুল্লা প্রথমে অবাক হয়ে বলেছিলেন, ‘এটা কি কোনও ভিডিও গেম?’ এভাবেই জীবন কাটছিল তাঁর। কিন্তু সেক্রেড গেমস সিজন ২ প্রকাশের পর থেকেই তাঁর মোবাইলে অজানা নম্বর থেকে অগুনতি কল আসতে শুরু করে। বেশিরভাগ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি কল করে তাঁকে জিজ্ঞেস করেছেন, ‘ইসা আছেন?’ ইসা নামের কাউকে চেনেন না কুনহাব্দুল্লা। অথচ তাঁর মোবাইলে দিনে ৩০টিরও বেশি কল আসছে নিয়মিত। তিনি বলেন, ‘গত তিনদিন ধরে আমার মোবাইলে ভারত, পাকিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরশাহী ছাড়াও অন্যান্য দেশ থেকে প্রচুর ফোন কল পাচ্ছি। আমি বুঝতে পারছি না, আমার সঙ্গে কী ঘটছে।’

যদিও সেক্রেড গেমসের এই সিজনের প্রথম এপিসোডে ইসার নম্বর দেখানো হয়েছিল একটা ছোট্ট চিরকুটে। তা বোঝার কোনও উপায় ছিল না। কিন্তু সাবটাইটল-ই এক্ষেত্রে কাল হয়েছে। মাফিয়া সুলেমন ইসার কর্মফল ভুগছেন কুনহাব্দুল্লা সিএম। বেচারা!