মা হতে চলেছেন আলিয়া এই খবর আসার পরেও জন বিরাম নেই রণবীর পত্নীর।

ক্লান্তিহীন ভাবে তিনি একের পর এক কাজ করে যাচ্ছেন।

যখন এই খবর প্রথম আসে তখন তিনি বিদেশে, তার সর্বপ্রথম হলিউড ছবি “হার্ট অফ স্টোন” শ্যুটিং নিয়ে ব্যস্ত।

তারপরেই দেশে ফিরতে ফিরতে না ফিরতেই তাকে দেখা গেছে ব্রহ্মাস্ত্র এবং তার প্রথম ওটিটি সিরিজ “ডার্লিংস” এর প্রচারে।

এখানেই থেকে নেই তিনি একের পর এর ছবির শ্যুটিংও শেষ করছেন তিনি।

এত সব কিছুর মধ্যে তিনি করণ জোহরের ছবি “রকি অর রানি কি প্রেম কাহিনী”র শ্যুটিং শেষ করে ফেলছেন।

সারাদিন এটি খাটাখাটনি পরিশ্রমের পর পরিবারের কাছ থেকে কতটা আদর যত্ন পান তিনি?

কি ভাবে তার স্বামী তার যত্ন নেন? এই প্রশ্ন করা হলে অভিনেত্রী বলেন,‘ও সবসময়ই আমার খুব যত্ন নেয়।

যদি জিজ্ঞেস করেন ও আমার পা টিপে দেয় কিনা, তাহলে বলব না।

কিন্তু আমাকে বিশেষ মনে করানোর জন্য ও অনেক কিছু করে। এখন তো আরও বেশি করে।’

শুধুমাত্র স্বামী ছাড়াও বাকিরা কি ভাবে তার জন্য নিচ্ছেন তাও জানতে চাওয়া হয় আলিয়ার কাছ থেকে।

রণবীরের মা অর্থাৎ নীতু কাপুর এবং আলিয়ার মা সোনি রাজদান এর এই বিষয়ে কতটা ভুমিকা সেটাও জানতে চাওয়া হয় তার কাছে।

তখন অভিনেত্রী জানান এত সমস্ত কাজের মাঝে তার বাড়িতে থাকার সেরকম সুযোগ হয় না।

একের পর এক কাজে তাকে বেশিরভাগ সময় বাড়ির বাইরে এমনকি দেশের বাইরেও কাটাতে হচ্ছে।

কিন্তু তিনি যে টুকু সময় বাইরে থাকেন তখন তারা বিশেষ ভাবে খেয়াল রাখেন তার।

আলিয়া (Alia Bhatt) বলেন,‘আমি সম্প্রতি লন্ডনে তিন মাসের শ্যুটিং শিডিউল শেষ করে ফিরেছি।

ডাল-ভাতটা অনেক মিস করছিলাম। যদিও এমন একজনকে খুঁজে পেয়েছিলাম যে আমার জন্য ডাল-ভাত এবং পোহা বানাতো।

সকালের টিফিনে পোহা খেতে পছন্দ করি আমি। ওখানে অমলেট তৈরি করা শিখেছি।’

এখন আপাতত সবাই অপেক্ষায় তার প্রথম ওটিটি সিরিজ দেখার জন্য।

তিনি শুধুমাত্র এই সিরিজের পরিচালক নন বরং তিনি নিজে এই সিরিজের মুখ্য চরিত্র।

আগামি ৫ই আগস্ট মুক্তি পাচ্ছে আলিয়া অভিনীত এই সিরিজ “ডার্লিংস”।

আরো পড়ুন:

Image source-Google