নিউজপোল ডেস্কঃ বিসব্রেন টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শেষে দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপাকে রাহানে ব্রিগেড। দিনের শেষে ভারতের রান ২ উইকেটে ৬২। যদিও বৃষ্টির কারনে এদিন তৃতীয় সেশনের একটিও বল খেলা হয়েনি। চা বিরতির সময় থকেই মুষলধারে শুরু হয় বৃষ্টি। তাই বাধ্য হয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলায় ইতি টানতে হয় আম্পায়ারদের। 

প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার করা ৩৬৯ রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভাল হয়নি ভারতের। দলের ১১ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৭ রান করে কামিন্সের বলে আউট হন শুভমান গিল। অন্যদিকে রোহিত শর্মাকে ছন্দে দেখালেও ৪৪ রানে নাথন লায়নের বলে আউট হয়ে সাঝঘরে ফেরেন তিনি। শুরুতেই গিলের উইকেট হারাতেই পূজারাকে সঙ্গী করে দলের রান এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন রোহিত। কিন্তু স্কোরবোর্ডে ৬০ রানের মাথায় লায়নের ফ্লাইটেড বলে খারাপ শট খেলে স্টার্কের হাতে ধরা দেন তিনি। রোহিত আউট হতেই ক্রিজে নামেন ক্যাপ্টেন রাহানে। দ্বিতীয় সেশন শেষের আগে ভারতের এই দুই নির্ভরযোগ্য খেলোয়াড় কোনও অঘটন ঘটতে দেননি। ২৬ অভার শেষে ২ উইকেট হারিয়ে ভারতের রান যখন ৬২ তখন চা বিরতি ঘোষণ করেন আম্পায়ার। বিরতি চলাকালীন গাব্বায় শুরু হয় মুশলধারে বৃষ্টি, যে কারনে তৃতীয় সেশনের একটি বলও খেলা হয়নি। নির্ধারিত সময় পেরিয়ে যেতেই বাধ্য হয়ে আম্পায়ারা দ্বিতীয় দিনের খেলায় যবনিকা টানেন।

দ্বিতীয় দিনের শেষে গাব্বায় ম্যাচের যা পরিস্থিতি তাতে ২ উইকেট হারিয়ে বিপাকে ভারত। প্রথম ইনিংসে দলকে লিড এনে দিতে হলে রাহানে-পূজারাকে বাড়তি দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে। ইতিমধ্যে চোট আঘাতের কারনে দলের উল্লেখযোগ্য খেলোয়াড়রা ছিটকে গিয়েছেন সিরিজ থেকে। তাই চতুর্থ টেস্টে অভিজ্ঞতা সম্পন্ন খেলোয়াড়ের সংখ্যা খুবই কম। তাই এই দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যানের উপর নির্ভর করবে অনেক কিছু। যদিও ম্যাচের তৃতীয় দিনেও বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। তবে দেখার বিষয় খেলা যখনই শুরু হোক না কেন ভারত কিভাবে অস্ট্রেলিয়ার অভজ্ঞ বোলিং আক্রমণের সামনা করেন?