জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে ভারতমাতার জয় স্লোগান।

নিউজপোল ডেস্ক: নজির গড়লেন ইন্দো-তিবেটান বর্ডার পুলিশের পর্বতারোহীরা। হিমাচল প্রদেশ ও তিব্বতের সীমান্ত এলাকায় অবস্থিত লিও পারগিল শৃঙ্গ। দুর্গম শিখরের উচ্চতা ২২,২২২ ফুট। এই শৃঙ্গকে লিও পারগেল নামেও পরিচিত। হিমাচল প্রদেশের উচ্চতম এই শিখরে পৌঁছনো সহজ কাজ নয়। তার মধ্যে প্রতিকূল আবহাওয়া। কখনও রোদ, কখনও আবার বৃষ্টি হওয়ায় সেই দুর্গম শিখরে পৌঁছনো আরও কঠিন হয়ে পড়ে। তার মধ্যে চলছে করোনা ভাইরাসের দাপট। অনেকেই সেই পরিস্থিতকে মেনে নিয়ে অভিযান স্থগিত রাখার পরামর্শ দিয়েছিলেন। কিন্তু বহুদিন ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ভারতীয় জওয়ানরা। এর জন্য কঠোর নিয়ম মেনে চলেছিলেন ITBP-র ১৬ জন পর্বতারোহী। তাই বাধা আসলেও হার মানেননি। সেখানেই ওড়ালেন ভারতের জাতীয় পতাকা।

কিছুদিন আগেই লিও পারগিলের শিখরে পৌঁছনোর জন্য রওনা দেন ১৬ সদস্যের একটি দল। যার নেতৃত্বে ছিলেন ডেপুটি কমান্ডান্ট কুলদীপ সিং। তাঁর সঙ্গে সহ নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ডেপুটি কমান্ডান্ট ধর্মেন্দ্র। তবে সকলে লিও পারগিলে পৌঁছাতে পারেননি। অবশেষে অগস্টের ৩১ তারিখে ১২ জনের টিম হিমাচল প্রদেশের উচ্চতম শৃঙ্গে পৌঁছান। তবে সকলে লিও পারগিলে পৌঁছাতে পারেননি। ১২ জনের টিম শেষ পর্যন্ত হিমাচল প্রদেশের উচ্চতম শৃঙ্গে পৌঁছন। সেখানে গিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে ভারতমাতার জয় স্লোগান দেন। প্রকাশ্যে এসেছে সেই ভিডিয়ো। প্রতিকূল পরিবেশে পর্বতারোহণের জন্য সবথেকে শক্তিশালী ও সেরা বলে বিবেচনা করা হয় আইটিবিপিকে(ITBP)। এখানকার জওয়ানরা প্রতিকূল জলবায়ুর মধ্যে কাজ করেন। যা পর্বতারোহণের পক্ষে সহায়ক বলে মনে করা হয়।

প্রসঙ্গ, ২০১৯ সালে ইউরোপের সর্বোচ্চ শৃঙ্গ মাউন্ট এলব্রাস জয় করলেন বাংলার মেয়ে স্বরূপা মন্ডল। দক্ষিণ রাশিয়ার সীমান্তে অবস্থিত মাউন্ট এলব্রাসের জন্য ১ লা জুলাই থেকে অভিযান শুরু করেছিলেন ২২ বছরের স্বরূপা। হাওড়ার ডোমজুড়ের বাসিন্দা স্বরূপার সঙ্গে এই অভিযানে গিয়েছিলেন এভারেস্টজয়ী দেবব্রত মুখোপাধ্যায়। কলকাতার পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরে কর্মরত স্বরূপার এবার লক্ষ্য বিশ্বের ৭টি উচ্চতম শৃঙ্গ জয় করা।