দুর্গাপুজো শেষ। কিন্তু বাঙালির যে বারো মাসে তেরো পার্বন। বুধবারই লক্ষ্মীপুজো (Laxmi Puja)। তারপর আবার রয়েছে দীপাবলী (diwali)। কলকাতায় রাস্তাঘাটে এখন ভিড় থাকবে শহর ও শহরতলির মানুষদের। আর তার আগে যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে বড় ঘোষণা করল কলকাতা মেট্রো (Kolkata Metro)।

আগামী বুধবার অর্থাত্‍, লক্ষ্মীপুজোর দিন শহরে ২১৪ টি মেট্রো পরিষেবা চালু থাকবে। ২১৪ টি মেট্রো পরিষেবার মধ্যে ১০৭ টি ডাউন মেট্রো এবং বাকি ১০৭ টি আপ মেট্রো পরিষেবা চালু থাকবে। দিনের প্রথম মেট্রো চালু হবে সকাল সাড়ে সাতটায়। দুই প্রান্ত থেকে শেষ মেট্রো ছাড়বে রাত সাড়ে দশটায়। (Kolkata Metro)

এর আগে দুর্গাপুজোর সময়েও যাত্রীদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে বাড়তি পরিষেবা চালু রেখেছিল কলকাতা মেট্রো। কারণ, যতই নিয়মের বিধি নিষেধ থাকুক না কেন, পুজোর চারটে দিন মানুষ যে পথে নামবেই, তা আগেভাগেই অনুমান করে নিয়েছিলেন কলকাতা মেট্রোর কর্তারা।

প্রতিপদ থেকেই মানুষ মণ্ডপে ভিড় জমাতে শুরু করে দিয়েছিলেন। আর তা দেখে সপ্তমী, অষ্টমী, নবমী যে ঢল আরও নামবে, তা আরও স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষের কাছে।

আর তাই সপ্তমী-অষ্টমী-নবমীতে শহরে ২০৪টি মেট্রো পরিষেবা চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। দশমীতে তা কমিয়ে ১৩৮টি মেট্রো পরিষেবা করা হয়েছিল।

কিন্তু এবার লক্ষ্মীপুজোর দিন দুর্গাপুজোর থেকেও বেশি মেট্রো পরিষেবা চালু রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কলকাতা মেট্রো। ২১৪ টি পরিষেবা চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

দমদম এবং কবি সুভাষ থেকে আগের মতোই দিনের প্রথম মেট্রো সকাল সাড়ে ৭টায় ছাড়বে। দমদম ও কবি সুভাষ থেকে রাত সাড়ে ১০ টায় দিনের শেষ মেট্রো পাওয়া যাবে।

এর আগে দুর্গাপুজোয় যাত্রীর চাপের কথা মাথায় রেখে অতিরিক্ত ৬ লক্ষ স্মার্ট কার্ডের ব্যবস্থা করেছিল কলকাতা মেট্রো রেল কর্তৃপক্ষ।

কলকাতা মেট্রোর জেনারেল ম্যানেজার মনোজ জোশি (Manoj Joshi) জানিয়েছিলে, এমন অনেক যাত্রী আছেন, যাঁরা নিয়মিত মেট্রোয় যাতায়াত করেন না। তাঁদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে অতিরিক্ত প্রায় ছ’লক্ষ স্মার্ট কার্ড রাখা হবে।বলা হয়েছিল, যে সমস্ত যাত্রী শুধুমাত্র পুজোর সময় স্মার্ট কার্ডের মাধ্যমে যাতায়াত করবেন, তাঁরা প্রয়োজন হলে পুজোর শেষে স্মার্ট কার্ড ফেরত দিয়ে রিফান্ড নিতে পারবেন।

আরো পড়ুন:  Kolkata metro: পুজোয় মাঝরাত পর্যন্ত চলতে পারে মেট্রো