নিউজপোল ডেস্কঃ তৃণমূল ছেড়ে সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী। বিজেপিতে যোগ দিয়েই ২১-এ বাংলা দখলের লক্ষ্যে রীতিমত ঝাঁপিয়ে পড়েছেন তিনি। কলকাতা থেকে জেলা, সর্বত্রই চলছে শুভেন্দু অধিকারীর নেতৃত্বে মিটিং, মিছিল। প্রতিটি জনসভা থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি-সহ দলের একাধিক নেতা মন্ত্রীদের আক্রমণ করছেন বিজেপি নেতা। এবার অবমাননাকর মন্তব্যের জন্য অভিষেক ব্যানার্জিকে আইনি নোটিশ পাঠালেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি। শুভেন্দুকে ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে ক্ষমা না চাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন অভিষেক। আর তা নাহলে মানহানির মামলা দায়ের করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে তৃণমূল সাংসদ।

নাম না করে মমতা ব্যানার্জিকে ‘পিসি’ আবার অভিষেক ব্যানার্জিকে ‘ভাইপো’ বলে আক্রমণ করেন বঙ্গ বিজেপির নেতারা। বিধানসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে, বিষয়টি যেন আরও বেশি জোরাল হয়ে দেখা দিচ্ছে। দিন দুয়েক আগে সমস্ত রাখঢাক সরিয়ে অভিষেক ব্যানার্জির নাম নিয়ে ‘তোলাবাজ ভাইপো’ বলে সম্বোধন করেন শুভেন্দু অধিকারি। খেজুরির সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী বলেছিলেন, “একটা তোলা শ্রী পুরস্কার হবে। সেটা পাবে ওঁর ভাইপো। তোলাবাজ অভিষেক ব্যানার্জী। তোলাবাজ ভাইপো হটাও। গরু চোর, কয়লা চোর, বালি চোর ভাইপো হটাও। একটাই লক্ষ্য- তোলাবাজ বাইপোকে হটানো।” এই মন্তব্যের পর ৪৮ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই শুভেন্দু অধিকারীকে আইনি নোটিশ ধরালেন অভিষেক ব্যানার্জি।

প্রসঙ্গত, ডায়মন্ডহারবারের সভা থেকে ভাইপো কে? সেনিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জি। তিনি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছিলেন ভাইপোর আসল পরিচয় প্রকাশ্যে আনার জন্য। এবার সেই ফাঁদে পা দিয়েই বিপাকে বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।