নিউজপোল ডেস্ক:‌ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (‌সিএএ)‌, এনআরসি নিয়ে ক্ষোভে ফেটে পড়ছে গোটা দেশ। প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন সাধারণ মানুষ থেকে পড়ুয়ারা। বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোয় প্রতিবাদীদের লক্ষ্য করে গুলি চালিয়েছে পুলিশ। উত্তরপ্রদেশে মারা গেছেন ১৮ জন। অসমে প্রায় ৫ জন। গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরছে বলে আঙুল উঠেছে মোদী সরকারের দিকে। প্রধানমন্ত্রী যদিও এসব নিয়ে নীরব থেকেছেন। শেষ পর্যন্ত সেই নীরবতা ভাঙল। সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে পরোক্ষে তিনি একপ্রকার অভিযোগ উড়িয়েই দিলেন।
সিএএ, এনআরসি নিয়ে বিরোধিতা করছে প্রায় গোটা দেশ। বিরোধী রাজনীতিক থেকে বিশিষ্টজন— বারবার আঙুল তুলেছেন মোদী সরকারের দিকে। বিজেপি–র নেতা–মন্ত্রীরা একের পর এক বাক্যবাণ ছুড়েছেন। বিতর্ক তৈরি হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী কিন্তু একটি কথাও বলেননি। এমনকী সরকারের প্রধান হিসেবে আশ্বাসও দেননি। অবশেষে সরাসরি না হলেও মুখ খুললেন মোদী। বুঝিয়ে দিলেন, দেশে এখনও ভিন্ন মতকে সম্মান করা হয়। উদারতা এখনও বেঁচে রয়েছে। টুইটারে লিখলেন, ‘‌যেখানে অকপটতা রয়েছে, ভিন্ন মতের প্রতি সম্মান রয়েছে, সেখানে উদ্ভাবন হওয়া খুব স্বাভাবিক। ভারতীয়দের এই উদ্ভাবনী শক্তি গোটা বিশ্বকে ভারতে টেনে আনছে’‌।