নিউজপোল ডেস্ক: ঠিক সময়ে ঘুমোতে যান? কত ঘণ্টা কাটান বিছানায়? রাতে ঘুমের দেশে যদি ন’ঘণ্টা কিংবা তার বেশি সময় কাটান তাহলে বিপদ অপেক্ষা করে আছে আপনার জন্য। মায়ামি-র মিলার স্কুলের একদল গবেষক ৫০০০ জনের উপর সাত বছর ধরে গবেষণা করে সিদ্ধান্তে এসেছেন, দিনে ন’ঘণ্টা বেশি ঘুমোলে স্মৃতিভ্রংশ হতে পারে আপনার।

নিউইয়র্ক থেকে শিকাগো শহরের বিভিন্ন জায়গায় ৪৫ থেকে ৭৫ বছরের মহিলা ও পুরুষদের উপর গবেষণা করে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন গবেষকরা। এই গবেষণা চলার সময় এক সপ্তাহ ধরে যুবক-যুবতীদের পরীক্ষা করা হয়েছে। প্রতিদিন তাঁদের কিছু প্রশ্ন করা হয়েছে। মায়ামির গবেষকরা জানাচ্ছেন, এই গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যাঁদের ন’ঘণ্টার বেশি ঘুমনোর অভ্যেস রয়েছে তাদের শেখার ক্ষমতাও অন্যান্যদের তুলনায় ২২ শতাংশ কম। মিয়ামির গবেষক এবং ডঃ রামোস বলেন, ‘অতিরিক্ত ঘুম স্নায়ুরোগ, স্মৃতিভ্রংশ এবং অ্যালঝাইমার্সের মতো মারাত্মক রোগকে ডেকে আনে। তবে সময় মতো সঠিক ঘুম এই সব রোগ থেকে দূরে রাখে।ন’ঘণ্টার বেশি ঘুম যেমন শরীরের জন্য সঠিক নয়, ঠিক তেমনই রাতে ৬ ঘণ্টার কম ঘুমোলেও শরীরের ক্ষতি অবশ্যম্ভাবী৷ গবেষকদের মতে রাতে সাত থেকে আট ঘন্টা ঘুম স্বাস্থ্যকর।