অভিষেক হওয়া বোলার নৌমান আলির দাপটে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে সহজেই জয় পেল পাকিস্তান। সাত উইকেটে জিতে দু’ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেল তারা।

করাচি থেকে ২৮৫ কিলোমিটার দূরে খিপ্রোতে জন্ম নৌমানের। তেল কোম্পানির কর্মীর ছেলে হওয়ায় ক্রিকেট খেলতে গিয়ে অনেক সমস্যার সামনে পড়তে হয়েছে। মূলত গ্রামে ভরা এলাকা খিপ্রো থেকে ক্রিকেটার উঠে আসার সংখ্যা খুবই নগণ্য। কিন্তু ঘরের মাঠে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজে যখন তিনি সুযোগ পেলেন, তখন অনেকেই চমকে গিয়েছিলেন। ৩৪ বছর বয়সে জাতীয় দলে অভিষেক সচরাচর দেখা যায় না।

কিন্তু নির্বাচকেরা যে তাঁকে নিয়ে ভুল করেননি, সেটা শুক্রবার প্রমাণ করে দিলেন নৌমান। তৃতীয় দিনের শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭৫ রানে এক উইকেট নিয়ে যথেষ্ট ভাল জায়গায় ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। কিন্তু চতুর্থ দিন নৌমানের দাপটে তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে প্রোটিয়াদের ইনিংস। শেষ চারটে উইকেটই নেন নৌমান। ম্যাচে ৩৫ রানে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন।

জয়ের জন্য ৮৮ রান তুলতে গিয়ে আনরিখ নোখিয়ার দাপটে একসময় নড়বড়ে দেখাচ্ছিল পাকিস্তানকে। কিন্তু বাবর আজম (৩০) এবং আজহার আলি (অপরাজিত ৩১) দলকে জিতিয়ে দেন। অধিনায়ক বাবর জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে খেলাই সাহায্য করেছে নৌমানকে।