ভোটের বাজারে উত্তর ২৪ পরগণায় এগিয়ে গেল চিংড়ি। এবারের বিধানসভা নির্বাচনে তাকেই জেলার ‘‌ম্যাসকট’‌ করা হল। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে এই ম্যাসকটের উদ্বোধন করলেন এই জেলার জেলাশাসক সুমিত গুপ্তা। তিনি বলেন, বাগদা জনপ্রিয় মাছ। লোকে এটাকে খুবই পছন্দ করে। তাই এই জেলার নির্বাচনী প্রচারের ম্যাসকট হিসেবে বাগদাকেই বেছে নেওয়া হল। জামা–প্যান্ট পরা বাগদা সহাস্যে ভোটারদের আহ্বান জানিয়ে বলছে, সকাল সকাল ভোট দিতে চলেন।
কী করবে বাগদারূপী ম্যাসকট? জেলাশাসক জানিয়েছেন, সে ঘুরে বেড়াবে জেলা জুড়ে। লোককে ভোটদানে এগিয়ে এসে গণতন্ত্রের এই যজ্ঞে সকলকে সামিল হতে উৎসাহিত করবে।
তবে বাগদা কিন্তু এই জেলার অর্থনৈতিক দিক থেকেও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গ্রামের দিকে অনেক লোক আছেন যারা বাগদা চাষ করেই জীবিকা অর্জন করেন। আবার নদীতে জাল ফেলার পর জালে বাগদা জড়িয়ে গেলে খুশি হন জেলেরা। কারণ, মাছটির বাণিজ্যিক মূল্য অন্য অনেক মাছের থেকেই বেশি। এবিষয়ে উত্তর ২৪ পরগণার এক প্রশাসনিক আধিকারিক বলেন, জেলার প্রায় ১ লক্ষ ২০ হাজার মানুষ এই চাষে যুক্ত। ফলে সবদিক ভেবেচিন্তেই বাগদাকে ম্যাসকট বানানো‌ হয়েছে।
ইতিমধ্যেই জেলায় শুরু হয়ে গেছে নির্বাচনী প্রস্তুতি। মহিলা ভোটারদের জন্য আলাদা করে থাকবে বুথ। প্রত্যেক বিধানসভায় মহিলা ভোটারদের নিরিখেই এই বুথগুলি তৈরি করা হবে। আশি বছর বা তার উর্দ্ধে ভোটাররা যদি বাড়িতেই ভোট দিতে চান তবে সেই ব্যবস্থাও করা হবে। এই ভোটদানের ভিডিওগ্রাফিও করা হবে। পুলিশের পক্ষ থেকে বিভিন্ন এলাকায় বাড়ানো হয়েছে টহলদারি। দাগীদের বিরুদ্ধে চলছে অভিযান।