নিউজপোল ডেস্কঃ আবারও করোনার হানা টলিউডে। করোনায় আক্রান্ত হলেন টলিপাড়ার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সৌমিলি বিশ্বাস। লকডাউনের পর শ্যুটিং শুরুর ছাড়পত্র পাওয়ার পরই সরকার থেকে অনেক নিয়ম বেঁধে দেওয়া হয়। সব রকম সর্তকতা মেনেই শুরু হয় টলি পাড়ায় শ্যুটিং। সমস্ত নিয়ম মেনে চললেও করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ করা সম্ভব হয়নি। ধারাবাহিকের স্টুডিওর সেট গুলিতে শ্যুটিং করতে গিয়ে একের পর এক কলাকুশলীরা আক্রান্ত হচ্ছেন কোভিড নাইনটিন এ।

জানা গিয়েছে,কয়েকদিন আগেই সৌমিলি শ্যুটিং করেছেন ‘বাবা লোকনাথ’ সিরিয়ালের। বাবা লোকনাথের মায়ের চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কথা অভিনেত্রী নিজেই জানিয়েছেন তাঁর সোশ্যাল সাইটে।সৌমিলি জানিয়েছেন, তিনি করোনা পজেটিভ। তবে তাঁর পরিবারের বাকি সদস্যরা নেগেটিভ। এখন তিনি হোম আইসোলেশনে রয়েছেন। যারা ১২ দিনের মধ্যে সৌমিলির সংস্পর্শে এসেছেন তাঁদেরকেও সতর্ক থাকতে এবং টেস্ট করাতে অনুরোধ করা হয়েছে। এই পোস্টে তিনি ধন্যবাদ জানিয়েছেন স্বাস্থ্য দফতর, লোকাল কাউন্সিলর ও থানাকেও।

অপরদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন অভিনেত্রী সোহিনী সরকারের  মেক-আপ আর্টিস্ট। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই শ্যুটিং বাতিল করলেন সোহিনী। চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আপাতত হোম কোয়ারান্টাইনেই রয়েছেন তিনি। আনলক পর্যায়ে সিনেমার শ্যুটিংয়ে ছাড়পত্র পাওয়ার পরই শুরু হয়েছিল ‘এই আমি রেণু’ ছবির কাজ।সেই ছবির শ্যুটিংয়েই ব্যস্ত ছিলেন সোহিনী। মূল চরিত্র রেণুর ভূমিকায় রয়েছেন সোহিনী সরকার। তাঁর বিপরীতে অভিনয় করছেন সোহম। পুরোদমে চলছিল শ্যুটিং। চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী আপাতত সাত দিনের হোম কোয়ারান্টাইনে থাকবেন সোহিনী সরকার। সোহিনীর বয়ফ্রেন্ড রণজয় বিষ্ণুও সোহিনীর সঙ্গে একই বাড়িতে থাকায় তিনিও এখন গৃহবন্দি। শুটিংয়ের জন্য বিদেশে যাওয়ার কথা ছিল, তাই নিয়ম মতো কোভিড টেস্ট করাতে হয়। কোনও রকম উপসর্গ ছিল না মেকআপ আর্টিস্টের। আর তারপরই করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে।সোহিনী জানিয়েছেন, তাঁর এবং রণজয়ের শরীরে এখনও কোনও রকম উপসর্গ দেখা দেয়নি। তবে ৭ দিন কোয়ারান্টাইনে থাকবেন। তারপর করোনা পরীক্ষা করাবেন। রিপোর্ট ঠিকঠাক এলে তবেই শ্যুটিং সেটে ফিরবেন।