বিনা অক্সিজেনেই এভারেস্ট জয় করলেন চন্দননগরের মেয়ে পিয়ালি বসাক (Piyali Basak)। আজ সকাল সাড়ে আটটা নাগাদ চূড়া ছুঁলেন পিয়ালি। পিয়াল সম্ভাব্য ভারতবর্ষের প্রথম মহিলা যিনি অক্সিজেন ছাড়া পৃথিবীর সর্বোচ্চ শৃঙ্গ জয় করলেন। এই খবর এসে পৌঁছাতেই গোটা বাংলা জুড়ে বইছে খুশির হাওয়া। বর্তমানে এভারেস্ট জয়ের পর ক্যাম্পে ফিরেছেন পিয়ালি।

দীর্ঘদিন ধরেই এভারেস্টের প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন পিয়ালি (Piyali Basak)। তবে অর্থ সমস্যা যেন এক বড় বাধা হয়ে দঁড়িয়েছিল। বাড়ি বন্ধক রেখে এবং নিজের যাবতীয় সঞ্চয় একত্র করেও ১৮ লাখ টাকার বেশি হচ্ছিল না। এ দিকে, এভারেস্ট অভিযানের জন্য দরকার ছিস ৩৫ লাখ। নেপাল সরকার জানিয়ে দিয়েছিল, পুরো টাকা না পেলে এভারেস্ট অভিযান করতে দেবে না তারা।

এই অবস্থায় ফেসবুকে পোস্ট করে সাধারণ মানুষের কাছে অর্থের আবেদন করেন পিয়ালি। সেখান থেকে আরও পাঁচ লাখের মতো টাকা ওঠে। এমন সময় পিয়ালির সাহায্যে এগিয়ে আসে তাঁর এজেন্সি। ফলে শেষ মুহূর্তে এভারেস্টে ওঠার অনুমতি পান পিয়ালি। রবিবার সকালেই তিনি বিশ্বের সর্বোচ্চ শৃঙ্গে আরোহণ করেন।

বাংলা ছাড়াও গোটা দেশ থেকেই অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়া মাউন্ট এভারেস্টে চড়ার নজির নেই। কিন্তু এখানেই ব্যতিক্রম পিয়ালি। তিনি ছোট থেকেই সাহসী। জানা গিয়েছে, পিয়ালির সঙ্গে অভিজ্ঞ পর্বতারোহী দাওয়া শেরপা রয়েছেন। এভারেস্ট জয় করে এ বার ক্যাম্প ৪-এ ফিরে বিশ্রাম নেবেন পিয়ালি। এর পর অক্সিজেনের সাহায্য ছাড়াই তিনি মাউন্ট লোৎসের দিকে এগিয়ে যাবেন।

আরও পড়ুন : SSC: যেভাবে পালাচ্ছেন,তার মানে তিনি অন্যায়ের সঙ্গে যুক্ত, কটাক্ষ দিলীপের