প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী রবিবার ভিডিয়ো কনফারেন্সে ৮টি নতুন ট্রেনের উদ্বোধন করলেন। এই ট্রেনগুলির বিশেষত্ব হল, এতে আধুনিক নকশার ভিস্টাডোম কোচ রয়েছে। শনিবারই নিজের টুইটার হ্যান্ডলে আধুনিক রূপে সজ্জিত এই কোচগুলির কিছু ছবি পোস্ট করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী যে ট্রেনটির ছবি পোস্ট করেছেন, সেই জনশতাব্দী এক্সপ্রেস আমদাবাদ থেকে কেবাডিয়া পর্যন্ত চলবে। ভিস্টাডোম কোচ নিয়ে তৈরি এমন আরও ৭টি ট্রেনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এই ট্রেনগুলি বিভিন্ন স্টেশন থেকে কেবাডিয়া পর্যন্ত চলবে। এই কেবাডিয়াতেই স্ট্যাচু অব ইউনিটি রয়েছে। ফলে পর্যটকদের কাছে সর্দার বল্লভ ভাই পটেলের মূর্তি দর্শনের পাশাপাশি আরও একটি উপলক্ষ তৈরি হয়ে গেল।

ভিস্টাডোম কোচ থেকে বাইরের দৃশ্য আরও ভাল ভাবে দেখার সুযোগ রয়েছে। কোচগুলির জানলা যেমন বড়, তেমনই ছাদে রয়েছে স্বচ্ছ আবরণ। ফলে আকাশও দেখা যাবে ভিতর থেকে। শুধু তাই নয়, একেকটি কোচের ৪৪টি আসনের প্রতিটি ১৮০ ডিগ্রি পর্যন্ত ঘুরতে পারে। সঙ্গে রয়েছে ওয়াইফাইয়ের সুবিধা। সব মিলিয়ে আরামদায়ক ভ্রমণের প্রচুর উপকরণ মজুত এই ভিস্টাডোম কোচগুলিতে।

জনশতাব্দী এক্সপ্রেস ছাড়াও মহামানা এক্সপ্রেস, দাদর-কেবাডিয়া এক্সপ্রেস, নিজামুদ্দিন-কেবাডিয়া সম্পর্ক ক্রান্তি এক্সপ্রেস, কেবাডিয়া-রেওয়া এক্সপ্রেস, চেন্নাই-কেবাডিয়া এক্সপ্রেস এবং কেবাডিয়া থেকে প্রতাপনগর পর্যন্ত ২টি মেমু ট্রেনের উদ্বোধন হয়েছে এ দিন।