নিউজপোল ডেস্ক:‌ ক্যাফেতে যান। গিয়ে মোবাইলে সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং নয়, বরং একটু বই পড়ুন। তাহলেই বিনামূল্যে মিলবে একটা কফি। হ্যাঁ, গল্প নয়। বাস্তব। বোলপুরের এক ক্যাফে এই সুযোগই দিচ্ছে গ্রাহকদের। উদ্দেশ্য একটা, গ্রাহকরা যাতে আরও বেশি করে বই পড়েন। এজন্য ক্যাফের মধ্যে আস্ত একটা লাইব্রেরিও গড়ে তোলা হয়েছে।


নতুন প্রজন্মের হাতে আর বই দেখা যায় না। বদলে মোবাইল আর কানে হেডফোন। আক্ষেপটা অনেক প্রবীণই করেন। বিষয়টা ভাবিয়েছিল ক্যাফের মালিক তাপস মল্লিককেও। তাই বোলপুরের নেতাজিনগর মার্কেটের কাছে এই ক্যাফে শুরু করেন। ক্যাফের মধ্যেই গড়ে তোলেন লাইব্রেরি। শিশুদের বই, গল্প, উপন্যাস, কবিতা, প্রবন্ধ থেকে হাল আমলের ইংরেজি ফিকশন— সবই রয়েছে। তাপসবাবুর ইচ্ছে, ক্যাফেতে ঢুকে সবাই একটু হলেও বই পড়ুন। বইয়ের সঙ্গে সময় কাটান। এজন্য তিনি একটি কফি বিনামূল্যে দিচ্ছে। ক্যাফেতে এমনিতে একটি কফির দাম ৪০ টাকা।
স্বাভাবিকভাবেই এই উদ্যোগে আপ্লুত বীরভূমের বিশিষ্ট জন থেকে তরুণ প্রজন্ম। অনেকের মতে, শুধু কফি বিনামূল্যে দিলেই হবে না। সঙ্গে কোন গ্রাহক মাসে কত বেশি বই পড়ছেন, সেই নিয়ে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হোক। এর ফলে বই পড়া যেমন বাড়বে, তেমন ক্যাফেতে গ্রাহক সংখ্যাও বাড়বে।