স্যান্ডেলউড মাদক চক্র মামলায় জনপ্রিয় কন্নড় অভিনেত্রী রাগিনী দ্বিবেদী।

নিউজপোল ডেস্ক: বলিউডে মাদক চক্রের অভিযোগ আগেই উঠেছে। এ বার সেই তালিকায় নাম জুড়ল কন্নড় চলচ্চিত্র জগতের। স্যান্ডেলউড মাদক চক্র মামলায় জনপ্রিয় কন্নড় অভিনেত্রী রাগিনী দ্বিবেদীকে আটক করল সেন্ট্রাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ। শুক্রবার সাতসকালে তাঁর বাড়িতে হানা দিয়ে তল্লাশি চালায় CCB। ভোর ৬.৩০টা নাগাদ সিসিবি-র ৬ জন পুলিশকর্মী ও একজন মহিলা পুলিশকর্মী হানা দেন রাগিনী দ্বিবেদীর বেঙ্গালুরুর বাড়িতে। এই মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ সেপ্টেম্বর রাগিনীকে তলব করেছিল সিসিবি। তবে তিনি না-গিয়ে তাঁর আইনজীবীকে পাঠান অভিনেত্রী। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে জানান, এত কম সময়ের মধ্যে তাঁকে ডেকে পাঠানোয়, তাঁর পক্ষে হাজিরা দেওয়া সম্ভব হয়নি। এরপরই শুক্রবার সকালবেলায় তাঁর বাড়িতে রেইড চালায় সিসিবি। সেই সময় বাড়িতেই ছিলেন রাগিনী। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

যে দিন তাঁকে সিসিবি তলব করেছিল, অর্থাত্‍‌ বৃহস্পতিবারই নিজের ফোন বদলে ফেলেন অভিনেত্রী। তারপরই তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালানোর জন্য আদালতের দ্বারস্থ হয় ক্রাইম ব্রাঞ্চ। আদালত তল্লাশিতে অনুমতি দেয়। ২১ অগস্ট কর্নাটকে একটি মাদক চক্রের সন্ধান পায় পুলিশ। গ্রেফতার করা হয় বেশ কয়েকজন মাদক পাচারকারীকে। অভিযুক্ত একজনের ডায়েরিতে কন্নড় ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ১৫ জনের নামের উল্লেখ রয়েছে। দিনকয়েক আগেই রাগিনীর বন্ধু রবিকেও গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মাদক মামলায় কন্নড় অভিনেত্রীর জড়িত থাকার তথ্য পেয়েছে সিসিবি। ৩ সেপ্টেম্বর ইনস্টাগ্রামে রাগিনী জানিয়েছিলেন, কেন তাঁকে তলব করা সত্ত্বেও তিনি ক্রাইম ব্রাঞ্চের অফিসে হাজিরা দিতে পারেননি। সোমবার অর্থাত্‍‌ ৭ সেপ্টেম্বর তিনি হাজিরা দেবেন বলে জানিয়েছিলেন।

এ দিকে, একই দিনে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর সঙ্গে মাদক যোগ নিয়ে যে তদন্ত চলছে, সেই মামলায় সুশান্তের বাড়ির ম্যানেজার স্যামুয়েল মিরান্ডাকে আটক করে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো। শুক্রবার সকালে তাঁর বাড়িতে রেইড চালিয়ে বেশকিছু ডিভাইস ও নথি বাজেয়াপ্ত করা হয়। একইসঙ্গে তল্লাশি চালানো হয় এই মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাই শৌভিক চক্রবর্তীর মুম্বইয়ের বাড়িতে। সেখান থেকেও বেশ কিছু ডিভাইস বাজেয়াপ্ত করার পর শৌভিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে গিয়েছে এনসিবি।